দেশ প্রথম পাতা

শিব ভক্তের পা টিপে দিচ্ছেন যোগী সরকারের পুলিশ, সোশ্যাল মিডিয়ায় তীব্র সমালোচনা

নিজস্ব প্রতিনিধি : বেঞ্চের উপর শুয়ে আছেন এক ব্যক্তি। আর রীতিমতো তাঁর পা টিপে দিচ্ছেন এক পুলিশ অফিসার। শিবভক্তদের সেবা করার সেই ভিডিয়ো আবার পোস্ট করা হয়েছে শামলি পুলিশের টুইটার হ্যান্ডেল তেকেই। তার পর সেই ভিডিও ঘিরে প্রশ্ন উঠেছে বিভিন্ন মহলে।

জানা গিয়েছে, ওই পুলিশ অফিসার আসলে উত্তরপ্রদেশের শামলির এসপি অজয় কুমার, যিনি ২০১১ ব্যাচের আইপিএস অফিসার। আর যাঁর পদসেবায় অজয় কুমার ব্যস্ত, সেই ব্যক্তি শিব ভক্ত, যাঁদের বলা হয় কানওয়ারিয়া।

কানওয়ার যাত্রীদের জন্য তৈরি করা হয়েছে মেডিক্যাল ক্যাম্প। শুক্রবার সেই ক্যাম্প পরিদর্শন করতে এসেছিলেন  শামলির এসপি অজয় কুমার। সেখানে এসে যোগী সরকারের ‘সেবা’ ধর্মকে তুলে ধরতেই ব্যস্ত হয়ে ওঠেন ওই পুলিশ অফিসার। মেডিক্যাল ক্যাম্পে গিয়ে পথ চলে ক্লান্ত যাত্রীদের পদসেবা করতেও শুরু করে দেন তিনি। তা দেখে সেখানে থাকা বাকি যাত্রীরা হকচকিয়ে যান।

শামলি পুলিশের তরফে অবশ্য ভিডিওটি সোশ্যাল মিডিয়ায় পোস্টের সময় লিখেছে, ‘সুরক্ষার সঙ্গে সেবা’। তা সত্ত্বেও ভাইরাল ওই ভিডিও ঘিরেই চলছে তর্ক-বিতর্কের ঝড়৷ কেউ কেউ বলছেন, ‘শিব ভক্তের পায়ে হাত দেওয়ার আগে ওই এসপির একবার মাথায় রাখা উচিত ছিল যে, উনি কোন পদে রয়েছেন। ভক্তি আছে, বা যাই হোক সবই ঠিকাছে। কিন্তু কোন অফিসে উনি বসেন, সেটা তো খেয়াল রাখতে হবে।’ তবে কেউ কেউ মানবতাকেই ঊর্ধ্বে রাখার পক্ষপাতী৷ তাঁদের দাবি, অজয় কুমারের মতো পুলিশকর্মী অত্যন্ত প্রয়োজন৷ তাঁকে ‘মহান’ বলেও উল্লেখ করেছেন অনেকেই৷

গত ১৭ জুলাই থেকে উত্তরপ্রদেশে শুরু হয়েছে কানওয়ার যাত্রা।যা চলছে মহা ধুমধামের সঙ্গে। বাঁক কাঁধে ভক্তরা মন্দিরে গিয়ে জল ঢালেন শিবের মাথায়। এই সময় কানওয়ার যাত্রায় অংশ নেন প্রচুর শিবভক্ত। সেই যাত্রীদের যাতে পথেকোনও অসুবিধা না হয় সে জন্য বিশেষ ব্যবস্থা নেওয়ার কথা আগেই জানিয়েছিল উত্তরপ্রদেশের যোগী আদিত্যনাথের সরকার।

Spread the love