কলকাতা প্রথম পাতা

দুর্গাপুজোর রাশ কার হাতে? খাস মমতার বাড়ির কাছেই তৃণমূল-বিজেপির সংঘর্ষে উত্তপ্ত এলাকা

নিজস্ব প্রতিনিধি— দুর্গাপুজোর দখল কার হাতে? সে নিয়েই উত্তপ্ত হয়ে উঠল খাস কলকাতার রাসবিহারী অ্যাভিনিউয়ের শীতলাতলা। পুজো কমিটির দখল ঘিরে তৃণমূল ও বিজেপি কর্মী-সমর্থকদের সংঘর্ষে উত্তপ্ত হয়ে উঠল দক্ষিণ কলকাতার রাসবিহারী অ্যাভিনিউ এলাকা। সংঘর্ষে বিজেপি ও তৃণমূলের দু’তরফে বেশ কয়েকজন আহত হয়েছেন। এদিকে বিজেপির লোকজনকে আটকে রাখার অভিযোগ উঠেছে স্থানীয়দের বিরুদ্ধে। পরে টালিগঞ্জ থানার পুলিশ গিয়ে তাঁদের উদ্ধার করেন। এলাকায় উত্তেজনা থাকায় বিশাল সংখ্যাক বাহিনী মোতায়েন করা হয়েছে।

বিবাদের সূত্রপাত আদি দক্ষিণ কলকাতা বারোয়ারি দুর্গাপুজোর দখল ঘিরে। গত ৯২ বছর ধরে এই পুজো চলছে। রাসবিহারী অ্যাভিনিউ এলাকার এই পুজোর দখল নিতে এবার মরিয়া হয়ে উঠেছে বিজেপি। তা নিয়ে গত কয়েকদিন থেকে ওই এলাকায় চাপা উত্তেজনা ছিল। সম্প্রতি বিজেপির তরফে খুঁটি পুজো করা হয়। মঙ্গলবার সন্ধেবেলায় বিজেপি নেতা সায়ন্তন বসু এলাকায় যান। এরপরই ক্লাবের সদস্য তৃণমূল কর্মীরা ক্ষিপ্ত হয়ে ওঠেন। বর্তমান পুজো কমিটির লোকজনদের অন্ধকারে রেখে বিজেপির লোকজন এদিন খুঁটি পুজোর চেষ্টা করেন বলে অভিযোগ। স্থানীয় বাসিন্দারা একজোট হয়ে এর প্রতিবাদে রুখে দাঁড়ান। ‘বহিরাগতদের’ ঘিরে ধরে শুরু হয় বিক্ষোভ। বিজেপি কর্মীদের ঘিরে রেখে চলে মারধর। তাঁদের গাড়িতে ভাঙচুরও চালানো হয় বলে অভিযোগ। খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে পৌঁছয় টালিগঞ্জ থানার পুলিশ। আটক বিজেপি কর্মীদের উদ্ধার করে থানায় আনা হয়।

এদিকে, এই ঘটনার জেরে বিজেপি কর্মীদের ক্ষোভ গিয়ে পড়ে পুলিশের উপরে। থানায় গিয়ে বিক্ষোভ দেখাতে শুরু করেন তাঁরা। বিজেপি কর্মীদের অভিযোগ, তাঁদের কর্মীদের আটকে রেখেছিল। একাধিকবার আবেদন করা হলেও পুলিশ অনেক দেরি করে ঘটনাস্থলে আসে। যদিও গোটা ঘটনার সঙ্গে তাঁদের কোনও যোগ নেই বলে দাবি তৃণমূল নেতৃত্বের। এলাকায় উত্তেজনা আছে।

Spread the love