জেলা প্রথম পাতা

যিনিই দাঁড়ান, লড়াই হবে রাজনীতি এবং আদর্শ নিয়ে !বিধায়ক সব্যসাচীকে মানসিক ভারসাম্যহীন বলে বিঁধলেন কাকলি  

নিজস্ব প্রতিনিধি: অতিসম্প্রতি তৃণমূল বিধায়ক সব্যসাচী দত্তের বাড়িতে গিয়ে লুচি-আলুর দম খান বিজেপি নেতা মুকুল রায়। তারপর থেকেই রাজনীতিতে শুরু হয় নয়া জল্পনা, বারাসত কেন্দ্র থেকে বিজেপি প্রার্থী করতে পারে সব্যসাচী দত্তকে। এই খবরও ছড়িয়ে পড়ে বিভিন্ন মহলে।তবে বিধাননগর পুরসভার কাউন্সিলরদের সঙ্গে বৈঠকের পর ফিরহাদ হাকিম বলেন, ”পুরনো পরিচয়ের জন্য সৌজন্যবশত লুচি-আলুর দম খাইয়েছিলেন। তখন অভিসন্ধি বুঝতে পারেননি। সব্যসাচী দলেই থাকছেন”। সব্যসাচী দত্ত জানিয়ে দেন, দল ছাড়ার কোনও প্রশ্নই নেই। তৃণমূলেই থাকছেন।কিন্তু তাও জল্পনার অবসান হচ্ছে না। মঙ্গলবার উত্তর ২৪ পরগনার জেলা সভাপতি জ্যোতিপ্রিয় মল্লিক বলেন, ”সব্যসাচীর সঙ্গে ৩ দিন আগেও কথা হয়েছিল, বলেছে দলেই থাকছে”। তবে বারাসতের তৃণমূল প্রার্থী কাকলি ঘোষ দস্তিদার আবার সব্যসাচীর মানসিক ভারসাম্য নিয়ে প্রশ্ন তুলে দিয়েছেন।    

বারাসতের তৃণমূল প্রার্থী কাকলি ঘোষ দস্তিদার হাবরার একটি রক্তদান শিবিরে সাংবাদিকদের সামনে সব্যসাচীর নাম না করে তিনি বলেন, উনি কি মানসিক ভারসাম্য হারিয়ে ফেলেছেন? সব্যসাচী, সায়ন্তন যিনিই দাঁড়ান, রাজনীতি এবং আদর্শ নিয়ে লড়াই। প্রার্থী নিয়ে তিনি ভাবছেন না বলে দাবি করেছেন কাকলি। তাঁর কথায়,”একেক সময় একেক রকম কথা বলছেন, কখনও বলছেন তৃণমূলে আছেন, কখনও আবার অন্য কথা। আমার দেখে মনে হচ্ছে মানসিক ভারসাম্য হারিয়েছেন!

Spread the love

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।