প্রথম পাতা রাজনৈতিক লগডাউন

মুখ্যমন্ত্রী কোথায়, প্রশ্ন বিজেপি নেতাদের ।

নিজস্ব প্রতিনিধি – রাজ্যে করোনার থাবা বাড়ার সঙ্গে সঙ্গে বাড়ছে বিজেপি বনাম রাজ্য সরকারের তরজা। একদিকে রাজ্য সরকারের ভূমিকা নিয়ে প্রশ্ন তুলছেন বিজেপি নেতারা, অন্যদিকে রাজ্যের ভূমিকায় অসন্তোষ প্রকাশ করে পত্রাঘাত করছে কেন্দ্র। এই অবস্থায় মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় স্বাস্থ্য নিয়েও খোঁচা দিতে ছাড়লেন না বিজেপির রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষ । শনিবার তিনি কটাক্ষের সুরে জানান, “এক মাস ধরে রাস্তাঘাটে বিভিন্ন ভূমিকায় মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে দেখা গেছে। কিন্তু হঠাৎ করে তিনি কোথায় গেলেন?তাঁর শরীর সুস্থ আছে তো? তিনি কি কোয়ারেন্টাইন গেছেন? যদি এমন হয় সেক্ষেত্রে তা জানার সম্পূর্ণ অধিকার মানুষের রয়েছে।” দিলীপ ঘোষ আরো বলেন, “গত কয়েক দিন ধরেই ওনাকে দেখা যাচ্ছে না। মুখ্যমন্ত্রী কি তবে প্রশান্ত কিশোরের হাতে রাজ্যপাট দিয়ে বানপ্রস্থ যেতে চলেছেন।”

শুধু দিলীপ ঘোষ নয় মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় কোথায়, তা নিয়ে প্রশ্ন তুলেছেন বিজেপির আরেক হেভিওয়েট নেতা মুকুল রায়। শনিবার তিনি টুইটারে লেখেন, পশ্চিমবঙ্গের স্বাস্থ্যমন্ত্রী “মিসিং”। যখন রাজ্যে করোনা আক্রান্তের সংখ্যা বেড়ে চলেছে, তখন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় কোথায় তা নিয়ে প্রশ্ন তোলেন তিনি।
অর্থাৎ মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় কে নিশানা করার সামান্যতম সুযোগও ছাড়ছেন না বিরোধীরা।
কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহের চিঠি প্রসঙ্গে দিলীপ ঘোষ জানান, এর আগে স্বরাষ্ট্রসচিব চিঠি দিয়েছেন। রাজ্যকে কিন্তু সেই চিঠিতে কোন গুরুত্ব দেয়নি। তাই বাধ্য হয়ে অমিত শাহ রাজ্যকে চিঠি দিয়েছেন বলেও জানান তিনি। পাশাপাশি পরিযায়ী শ্রমিকদের রাজ্যে ফেরানো প্রসঙ্গে রাজ্য সরকারের তীব্র আক্রমণ করে তিনি জানান, রাজ্য সরকারের এদের ফেরানোর জন্য কোনো পদক্ষেপই নিচ্ছে না। সেক্ষেত্রে অন্যান্য রাজ্যগুলিকে চিঠি দিয়ে পশ্চিমবঙ্গ সরকার জানাক সেখানে কতজন শ্রমিক আটকে আছে। যাতে সেই রাজ্য সরকার তাদের থাকা-খাওয়ার বন্দোবস্ত করতে পারে।

Spread the love