কলকাতা জেলা প্রথম পাতা

আবহাওয়া নিয়ে আজ কি সুখের বাণী শোনাল হাওয়া অফিস?

নিজস্ব প্রতিনিধি— এ রাজ্যের দুই বঙ্গের দু’রকম অবস্থা। এদিকে বন্যার জলে ভেসে যাচ্ছে উত্তরবঙ্গে তেমনই অপরদিকে বৃষ্টি না হওয়ার ফলে মাথায় হাত পড়েছে চাষীদের। দু-একদিন ধরে দক্ষিণবঙ্গের কয়েক জায়গায় বিক্ষিপ্ত বৃষ্টি হলেও বৃষ্টি থাকতে আবারও শুরু হয় অস্বস্তি আর ভ্যাপসা গরম। আজ বৃহস্পতিবারও দক্ষিণবঙ্গে বিক্ষিপ্ত বৃষ্টি হতে পারে বলে জানিয়েছে আলিপুর আবহাওয়া দফতর। তবে দিনের আলো বাড়ার সঙ্গে তাপমাত্রাও বাড়তে থাকবে, ফলে অস্বস্তিও বাড়বে বলে জানা গিয়েছে। আলিপুর সূত্রে খবর, উত্তর পশ্চিম বঙ্গোপসাগরে তৈরি হয়েছে ঘূর্ণাবর্ত৷ তার জেরে আগামী ৪৮ ঘন্টার মধ্যে নিম্নচাপে পরিণত হতে পারে। এর ফলে আগামী ২৪ ঘন্টায় দক্ষিণবঙ্গে হালকা বৃষ্টির পূর্বাভাস দিয়েছেন আবহাওয়াবিদরা৷ একই সঙ্গে উত্তরবঙ্গের পাঁচটি জেলায় বিক্ষিপ্ত বৃষ্টিপাতের পূর্বাভাস দিয়েছে হাওয়া অফিস।

এদিকে বৃহস্পতিবার সকালে শহরের সর্বনিম্ন তাপমাত্রা ফের বেড়েছে। বুধবার ২৬ ডিগ্রির আশেপাশে ঘোরাফেরা করছিল সর্বনিম্ন তাপমাত্রা, এদিন তা যথারীতি বৃদ্ধি পেয়ে হয়েছে ২৮.৭ ডিগ্রি সেলসিয়াস, যা স্বাভাবিকের থেকে দুই ডিগ্রি বেশি। গতকাল সর্বোচ্চ তাপমাত্রা ৩৬.৩ তিন ডিগ্রি সেলসিয়াস, যা স্বাভাবিকের থেকে চার ডিগ্রি বেশি ছিল। বাতাসে আপেক্ষিক আর্দ্রতার পরিমাণ সর্বোচ্চ ৯১ সর্বনিম্ন ৪৭ শতাংশ। বৃষ্টি হয়নি। গত এক সপ্তাহে শহরে বৃষ্টির ঘাটতি ৬৩ শতাংশ।

কলকাতার মতোই দক্ষিণবঙ্গে অন্যান্য জেলাতেও বজায় থাকবে আর্দ্রতাজনিত অস্বস্তি৷ গত ২৪ ঘণ্টায় আসানসোল,  বাঁকুড়া, ব্যারাকপুর, বর্ধমান ,ক্যানিং, কাঁথি, দিঘার সর্বোচ্চ তাপমাত্রা ছিল যথাক্রমে ৩৬.৩, ৩৭.৭, ৩৫.৯, ৩৬.০, ৩৭.৫, ৩৮.০, ৩৬.৯ ডিগ্রি সেলসিয়াস। কৃষ্ণনগর, পুরুলিয়ার সর্বোচ্চ তাপমাত্রা যথাক্রমে ৩৬.২,৩৭.৩ ডিগ্রি সেলসিয়াসে রয়েছে। আজ বৃহস্পতিবার বিক্ষিপ্তভাবে হালকা বৃষ্টি হতে পারে দক্ষিণবঙ্গের কিছু জেলায়৷ নদিয়া, মুর্শিদাবাদে বৃষ্টির সম্ভাবনা বেশি ৷ উপকূলের জেলাতেও বৃষ্টির সম্ভাবনা বেশি রয়েছে বলে জানাচ্ছে হাওয়া অফিস।

Spread the love