দেশ প্রথম পাতা

নর্দমা পরিষ্কার করার জন্য সাংসদ হই নি, টয়লট পরিষ্কার করা আমার কাজ নয়! ফের শিরোনামে বিজেপি সাংসদ সাধ্বী প্রজ্ঞা

নিজস্ব প্রতিনিধি: প্রধানমন্ত্রীর ‘স্বচ্ছ ভারত অভিযান’-এ সাড়া দিয়ে ঝাড়ু হাতে রাস্তায় নেমে এসেছেন বিজেপি সাংসদরা। ঠিক এমন সময়ই গেরুয়া শিবিরের অস্বস্তি বাড়ালেন ভোপালের সাংসদ।শৌচালয় পরিষ্কার করার জন্য আমি সাংসদ হইনি, এমন দাবি করে ফের খবরে নিজের নাম তুলে নিলেন প্রজ্ঞা সিং ঠাকুর। ভোপালের সাংসদ প্রজ্ঞা নিজের লোকসভা এলাকার মানুষদের সঙ্গে কথা বলার সময়ে মন্তব্য করেন, “এখানে আমার নর্দমা পরিষ্কার করতে আসিনি। বুঝেছেন? আমরা একদমই আপনার শৌচালয় পরিষ্কার করতে আসিনি। যে কাজের জন্য আমরা এসেছি, আর নির্বাচিত হয়েছি, সেটা আমরা সততার সঙ্গে করব। আমরা এটা আগেও বলেছি। আজও বলছি, পরেও বলব।”সাধ্বী আরও বলেন, ‘‘স্থানীয় জনপ্রতিনিধি, বিধায়ক এবং পুরসভার কাউন্সিলরদের সঙ্গে একজোট হয়ে এলাকার উন্নতি সাধন করাই একজন সাংসদের কাজ। যখন তখন আমাকে ফোন না করে, যাবতীয় সমস্যা নিয়ে স্থানীয় জনপ্রতিনিধিদের কাছে যান। কাজ করিয়ে নিন।’’ সাধ্বীর সেই মন্তব্যের একটি ভিডিয়োও সামনে এসেছে। তারপরেই শোরগোল পড়ে গিয়েছে ভোপালের বিজেপি সাংসদকে নিয়ে।লোকসভা নির্বাচন ঘিরে বারবার সংবাদ শিরোনামে এসেছেন সাধ্বী প্রজ্ঞা সিং ঠাকুর। মালেগাঁও বিস্ফোরণে অভিযুক্তের তালিকায় থাকা প্রজ্ঞার সাংসদ হওয়া ঘিরে একটা সময়ে তুমুল সরগরম ছিল গোটা রাজনৈতিক মহল। বিভিন্ন সময়েই নানা বিতর্কিত মন্তব্যের জন্যও লোকসভা নির্বাচন ঘিরে খবরে উঠে আসেন প্রজ্ঞা। এবার সাংসদ হয়ে নয়া মন্তব্যের জেরেও তিনি খবরে।

Spread the love