জেলা প্রথম পাতা

জঙ্গলমহলে সংগঠন নেই বললেই চলে, তবু নিজেদের অস্তিত্ব প্রমাণ দিতে ভোটের লড়াইয়ে নামছে কংগ্রেসও

নিজস্ব প্রতিনিধি: ঝাড়্গ্রাম জেলায় সাংগঠনিক ক্ষমতার দিক দিয়ে একেবারে চাঙ্গা নেই কংগ্রেস। শুধুমাত্র নিজেদের ক্ষমতা কতটা তা জানান দিতে ঝাড়্গ্রাম লোকসভা কেন্দ্রে প্রার্থী দেবে কংগ্রেস। এক সময় ঝাড়্গ্রাম জেলা কংগ্রেসের পক্ষ থেকে দাবি করা হয়েছিল সিপিএমের সাথে গাঁটছড়া বেঁধেছে। সেই মোতাবেক ঝাড়্গ্রাম লোকসভা কেন্দ্রে সিপিএম প্রার্থী দেবে না বলেও জেলা কংগ্রেসে দাবি করেছিল। পরবর্তীতে সিপিএমের সাথে কংগ্রেসের কোন জোট হয়নি বলে পাল্টা দাবি করে সিপিএম। এমনকি সিপিএম ঝাড়্গ্রাম লোকসভা কেন্দ্রে তাদের প্রার্থীর নাম ঘোষণা করেছে। তবে ঝাড়গ্রাম লোকসভা আসনে এখনো প্রার্থী ঘোষনা করেনি এই কংগ্রেস। প্রার্থী ঘোষণা না হলেও বুথ ভিত্তিক কমিটি গঠনের জন্য বিভিন্ন বৈঠক সারচ্ছেন কংগ্রেসের দলীয় নেতৃত্ব।দলীয় নেতৃত্বের দাবি তার ইতিমধ্যে জেলার বেশ কয়েকটি জায়গায় প্রার্থীর নাম না লিখেও দেওয়াল লিখন করা হয়েছে বলে। ঝাড়গ্রাম লোকসভা এসটি আসনে সিপিএমের সাথে কংগ্রেসের সমঝোতা হওয়ার সম্ভাবনার কথা ছিল।কিন্তু ইতিমধ্যে সিপিএমের পক্ষ থেকে প্রার্থী ঘোষনা হয়ে গিয়েছে।ফলে কংগ্রেসের সাথে জোটের রাস্তা বন্ধ।তাই কংগ্রেস নিজেদের অস্তিত্ব রাখতে এই আসনে প্রার্থী দেবে বলে জানিয়েছে কংগ্রেসের জেলা নেতৃত্ব।ঝাড়গ্রাম জেলা কংগ্রেসের সভাপতি সুব্রত ভট্টাচার্য বলেন “ আমরা মানুষের কাছে আমাদের দলের বার্তা পৌছে দিতে চাই।এই নির্বচনের ফলাফল দেখে আমাদের সাংগঠনিক শক্তিও যাচাই করে নিয়ে চাই।তাই ঝাড়গ্রাম লোকসভা আসনে কংগ্রেস প্রার্থী দিচ্ছে।প্রদেশ কংগ্রেসের প্রাস্তাবিত নামের তালিকা থেকে কেন্দ্রীয় কমিটি কে প্রার্থী হবেন তা ঠিক করবেন।” ইতিমধ্যে ঝাড়গ্রাম লোকসভা আসনে তৃণমূল,সিপিএম,বিজেপি তাদের প্রার্থী ঘোষনা করেছে।ভোট ঘোষনা হওয়ার কয়েক দিনের মাথায় সবার আগে রাজ্যের শাসক দল পূর্নাঙ্গ প্রার্থী তালিকা প্রকাশ করেছে।পরে রাজ্য বামফ্রন্ট এবং বিজেপি প্রার্থীদের নাম প্রকাশ করেছে।প্রচারে এগিয়ে আবশ্যই রয়েছে তৃণমূল।তারা রোজই ব্লক ভিত্তক,অঞ্চল ভিত্তিক কর্মী বৈঠক চালিয়ে যাচ্ছে। কর্মীদের সাথে প্রার্থীর নিবির জন সংযোগ চালচ্ছে।অনেক আগের থেকেই মিটিং মিছিলও শুরু করেছে। অন্যদিকে সিপিএম এখনো সেই ভাবে প্রচারে আসেনি। নাম ঘোষনার দিন সিপিএম প্রার্থী শহরে একটি মিছিল করেছিল।বিজেপির পক্ষ থেকেও জোর কদমে প্রচার দেখা যাচ্ছেনা।কিন্তু কংগ্রেসের ঝাড়গ্রাম জেলায় রাজনৈতিক সংগঠন একাবারে তলানিতে।এখন কেবল অস্তিত্ব রাক্ষার জন্য তারা প্রার্থী দিচ্ছে বলেই জানা গিয়েছে দলীয় সূত্রে।

   

 

Spread the love

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।