দেশ প্রথম পাতা

গোয়ার নয়া মুখ্যমন্ত্রী বিজেপির সাওয়ান্ত, শরিকদের অভিমান ভাঙাতে জোড়া উপমুখ্যমন্ত্রী

নিজস্ব প্রতিনিধি : গোয়ার মুখ্যমন্ত্রী হতে পারেন বিজেপি বিধায়ক তথা গোয়ার স্পিকার প্রমোদ সাওয়ান্ত। জানা যাচ্ছে, আজই শপথ নিতে পারেন তিনি। পাশাপাশি, শরিকদের অভিমান ভাঙাতে জোড়া উপমুখ্যমন্ত্রী করা হচ্ছে। মহারাষ্ট্রবাদী গোমন্তক পার্টির সুধীন দাভালিকর এবং গোয়া ফরওয়ার্ড পার্টির বিজয় সারদেশাই হচ্ছেন উপমুখ্যমন্ত্রী।

গোয়ার মুখ্যমন্ত্রীর পদে দৌড়ে ছিলেন সুধীন দাভালিকর এবং বিজয় সারদেশাই। নিতিন গড়কড়ির নেতৃত্বাধীন বৈঠকে শরিকদের অভিমান ভাঙিয়ে শেষমেশ নিজদের দলের বিধায়ককে মুখ্যমন্ত্রী পদে বসাতে সক্ষম হয় বিজেপি। রবিবার সন্ধ্যায় প্রয়াত হন গোয়ার মুখ্যমন্ত্রী মনোহর পর্রীকর। বছর ৬৩-র ওই বিজেপি নেতা বছরখানেক ধরে অগ্নাশ্যয়ের ক্যানসারে ভুগছিলেন। সেই পরিস্থিতিতে গোয়ার সরকার গড়তে পর্রীকর প্রতিরক্ষামন্ত্রীর দায়িত্ব ছেড়ে দিয়ে গোয়া ফিরে যান। ফলে সরকার বাঁচাতে ভগ্নস্বাস্থ্য নিয়ে তিনি মুখ্যমন্ত্রীর দায়িত্ব সামলাচ্ছিলেন বলে মত রাজনৈতিক পর্যবেক্ষকদের।

গোয়ায় বিজেপির বিধায়ক মাইকেল লোবো জানিয়েছেন, মহারাষ্ট্রবাদী গোমন্তক পার্টির বিধায়ক সুদিন দাভালিকর মুখ্যমন্ত্রিত্বের দাবি জানিয়েছেন। যদিও মুখ্যমন্ত্রীর পদ ছাড়তে নারাজ বিজেপি। ফলে বিজেপি ও শরিক দলের মধ্যে আলোচনা ঐকমত্যে পৌঁছতে পারেনি। লোবোর দাবি, রবিবার রাতভর সমস্যার সমাধান হয়নি বটে। তবে সোমবারের মধ্যে ঠিক হয়ে যাবে যে কে হবেন গোয়ার পরবর্তী মুখ্যমন্ত্রী।

মহারাষ্ট্রবাদী গোমন্তক পার্টির বিধায়ক সুদিন দাভালিকর অবশ্য জানিয়েছেন, রবিবার নিতিন গড়কড়ি প্রত্যেক বিধায়কের সঙ্গে একান্তে বৈঠক করেছেন। কিছু বিষয় প্রত্যেক বিধায়কের কাছ থেকে আলাদা আলাদা ভাবে জানতে চেয়েছেন। কিন্তু কী নিয়ে সেই আলোচনা, তা অবশ্য জানাতে চাননি দাভালিকর।

এদিকে গোয়া ফরওয়ার্ড পার্টির নেতা বিজয় সারদেশাই জানান, পর্রীকরের অনুপস্থিতিতে কীভাবে সরকার চলবে, তা নিয়ে আশঙ্কা প্রকাশ করা হয়েছে। শরিক দলের আশঙ্কাকে গুরুত্ব দেওয়া উচিত বলেই তাঁর মত। সারদেশাইয়ের সঙ্গে পাঁচজন বিধায়ক রয়েছেন। তার মধ্যে দু’জন তাঁর দলের। আর বাকি তিনজন নির্দল। সারদেশাইয়ের বক্তব্য, বিজেপির জন্য তাঁদের দরজা এখনও বন্ধ হয়নি। ফলে তিনিও নিজেকে মুখ্যমন্ত্রিত্বের দাবিদার হিসেবে তুলে ধরতে চাইছেন বলে রাজনৈতিক মহলের মত।

 

Spread the love

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।