আন্তর্জাতিক প্রথম পাতা রাজনৈতিক

চতুর্থ দফার বৈঠকে দীঘর্ক্ষণ ভারত চিন সীমান্ত নিয়ে আলোচনা।

গালওয়ান উপত্যকায় ভারত-চীন সংঘর্ষের পর থেকেই দুই দেশের মধ্যে রাজনৈতিক চাপানউতোর চলছে। এ নিয়ে একাধিকবার বৈঠক হয়েছে চীন ও ভারতের। পুনরায় চতুর্থ দফার বৈঠক অনুষ্ঠিত হয় মঙ্গলবার সকালে সীমান্ত নিয়ে দুই দেশের রাষ্ট্র প্রতিনিধিদের মধ্যে দীর্ঘ আলাপ-আলোচনা হয়। পাশাপাশি দেশে বাতিল হয়ে যাওয়া টিক টক সহ ৫৯ টি অ্যাপ বাতিল হয়ে যাওয়া নিয়ে, প্রায় ৭৭ টি প্রশ্নের উত্তর চেয়েছে চীন। এছাড়াও ডিসএনগেজমেন্ট নিয়ে ভারত ও চিনের মধ্যে চতুর্থ দফার বৈঠকে বিস্তারিত আলোচনা হয়। লেফটেন্যান্ট জেনারেল স্তরের ম্যারাথন বৈঠকে পূর্ব লাদাখ সীমান্তে এলএসি সংলগ্ন এলাকা থেকে বিরাট বাহিনী ও অস্ত্রসম্ভার সরিয়ে নিয়ে যাওয়ার ব্যাপারে কথা হয়েছে দু দেশের সেনা কর্তাদের মধ্যে। বিশেষজ্ঞদের ধারণা এই আলোচনার পর কিছুটা হলেও স্বস্তিতে থাকবে লাদাখ সীমান্ত। সম্ভবত চীন সেনারা সীমান্তে এই মুহূর্তে অতর্কিতে কোনরকম সমস্যার সৃষ্টি করবে না। অবশ্য ৩০ শে জুনের পরে পেট্রোলিং ১৭এ এলাকা থেকে পাঁচটি সেনা ছাঁউনি সরিয়েছে চিনা ফৌজ। তবে কিছু নির্মাণ এখনও রয়েছে, সেগুলির ওপর কড়া নজর রাখছে ভারতীয় সেনাবাহিনী। কয়েকদিন আগে চীনের বিদেশমন্ত্রকের পক্ষে ঝাও লিজিয়ান জানান, আশা করা যায় দু’দেশের মধ্যে যে সমাধানসূত্র মিলেছে তাকে ভারত মান্যতা দেবে, সেই মতো তারা কাজ করবে। এভাবেই সীমান্ত পরিস্থিতি ধীরে ধীরে উন্নতি হচ্ছে।

Spread the love