কলকাতা প্রথম পাতা

ভুয়ো ডিগ্রি তৃণমূল সাংসদের, অভিষেককে তলব দিল্লি আদালতের

নিজস্ব প্রতিনিধি: লোকসভা নির্বাচনে দলের বিপর্যয়ের মধ্যেই এখন নতুন করে ঘুরে দাঁড়াতে চাইছেন শাসকদলের নেতা-নেত্রীরা।তবে সেইসময়ে দাঁড়িয়ে খানিক অস্বস্তিতে পড়তে পারেন তৃণমূল সাংসদ অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়। ভুয়ো ডিগ্রি মামলায় ডায়মন্ডহারবারের তৃণমূল কংগ্রেস সাংসদকে তলব করল দিল্লির এক আদালত। সুপ্রিম কোর্টের আইনজীবী সার্থক চতুর্বেদীর করা মামলার ভিত্তিতে ২৫ জুলাইয়ের মধ্যে অভিষেককে হাজিরার নির্দেশ দিয়েছে দিল্লির আদালত।প্রসঙ্গত,এর আগে লোকসভা নির্বাচন পর্বে ডায়মন্ডহারবারের তৃণমূল সাংসদ অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়ের বিরুদ্ধে নিজের ডিগ্রি নিয়ে ‘অসততা’র নজির রাখার অভিযোগ তোলেন বাম পরিষদীয় নেতা সুজন চক্রবর্তী৷

 

২০১৪ সালে দেওয়া হলফনামার সঙ্গে ২০১৯-এর লোকসভা নির্বাচনে কমিশনে জমা দেওয়া হলফনামায় বিস্তর ফারাক রয়েছে বলে অভিযোগ তোলেন বাম নেতা৷ গত ২ মে সাংবাদিক বৈঠক করে সিপিএম নেতা সুজন চক্রবর্তীর অভিযোগ তোলেন, হফনামায় দেওয়া তথ্য গোপন করেছেন তিনি৷অভিষেকের শিক্ষাগত যোগ্যতা নিয়ে প্রশ্ন সুজন চক্রবর্তী বলেছেন, ‘‘অভিষেক নিজের দেওয়া হলফনামায় বলেছেন, আইআইপিএম থেকে তিনি এমবিএ করেছেন৷ ২০০৮ সালে আইআইপিএম দিল্লি হাইকোর্টে হলফনামা দিয়ে জানিয়েছিল, তারা কোনও ডিগ্রি দেয় না৷ ২০১৪ সালে হাইকোর্ট আইআইপিএমকে জরিমানার নির্দেশ দেয়৷  এরপরও সেই ডিগ্রিকে ব্যবহার অসততার সামিল৷যদিও সাংসদের ঘনিষ্ঠমহল সূত্রে এর আগে সংবাদমাধ্যমে প্রকাশিত, ওই বেসরকারি শিক্ষা প্রতিষ্ঠান সংক্রান্ত দিল্লি আদালতের রায় বেরিয়েছিল ২০১৪ সালে। আর অভিষেক ডিগ্রি পেয়েছিলেন ২০০৯ সালে। সুতরাং এই ক্ষেত্রে আদালতের রায় প্রযোজ্য নয়।

Spread the love