কলকাতা প্রথম পাতা স্বাস্থ্য

আরজিকর -এর টপ ফ্লোর থেকে পড়ে মৃত্যু তরুণী চিকিৎসকের, অনুমান আত্মহত্যা ।

আরজিকর মেডিক্যাল কলেজ ও হাসপাতালের এক তরুণী চিকিৎসকের মৃত্যুকে কেন্দ্র করে রহস্য দানা বেঁধেছে। শুক্রবার সকালে হাসপাতালের ক্যাজুয়ালটি ব্লকের টপ ফ্লোর থেকে নীচে পড়ে মৃত্যু হয় ওই তরুণী চিকিৎসকের। পৌলমী সাহা (২৫) নামে ওই তরুণী পেডিয়াট্রিক বিভাগের পিজিটি ছিলেন। পুলিশের অনুমান এই ঘটনা আত্মহত্যা। ঘটনাস্থলে উপস্থিত এক প্রতক্ষদর্শী সুত্রে জানা গেছে, হঠাৎই খুব জোরে আওয়াজ! আমরা চমকে উঠেছিলাম সবাই। তাকিয়ে দেখি এমার্জেন্সি ওয়ার্ডের ক্যান্টিনের সামনে কার্নিশ থেকে কিছু একটা আছড়ে পড়েছে রেলিংয়ের ওপর। আমরা ছুটে গিয়ে দেখি রক্তাক্ত অবস্থায় পড়ে রয়েছেন এক তরুণী। তখনও জানতাম না, উনি কে।” হাসপাতাল সূত্রের খবর, বেশ কিছু দিন ধরেই মানসিক অবসাদে ভুগছিলেন পৌলোমী। শিশু বিভাগের সিক নিওনেটাল কেয়ার ইউনিটে তিনি ডিউটি করতেন। জানা গেছে, তাঁর অবসাদ এতই বেড়েছিল, যে তা নিয়ে তাঁর পরিবারের সঙ্গেও যোগাযোগ করা হয়েছিল। করোনা সন্দেহে বা উপসর্গ নিয়ে যে রোগীরা আসবেন তাঁদের প্রাথমিক চিকিৎসা করা হয়, সেই বিভাগে এদিন ওই চিকিৎসকের ডিউটি ছিল। মনে করা হচ্ছে এই বিষয়টি কোনোভাবে পৌলমির ওপর মানসিক চাপ সৃষ্টি করেছে। পাশাপাশি প্রতিটি সম্ভাব্য দিক খতিয়ে দেখছে পুলিশ। ময়নাতদন্তের জন্য দেহ পাঠানো হয়েছে।

Spread the love