দেশ প্রথম পাতা

সাফল্যের ভাষণ প্রধান মন্ত্রীর, নজরে নির্বাচন কমিশন

নিজস্ব প্রতিনিধি— বুধবার প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির একটি ট্যুইটে সরগোল পড়ে যায় গোটা ভারতবর্ষে। বিভিন্ন সোশ্যাল মিডিয়া থেকে টিভি, রেডি’র দিকে সকলের নজর আটকে। এরপর মিশন শক্তির সাফল্যের পর ভাষণ দেন প্রধানমন্ত্রী। তাতে দেশবাসীর কিছুটা স্বস্তি হলেও সেই ভাষণের দিকে নজর নির্বাচন কমিশনের। প্রধানমন্ত্রী যে ভাষণ দিয়েছে, তার আদর্শ আচরণবিধির নিরিখে খতিয়ে দেখতে একটি বিশেষ কমিটি গঠন করল নির্বাচন কমিশন।

বুধবার ভাষণের পর বিরোধীরা অভিযোগ করেন প্রধানমন্ত্রী নির্বাচন বিধি লঙ্ঘন করেছে। তাদের দাবি, লোকসভা নির্বাচনের আগে রাজনৈতিক স্বার্থ চরিতার্থ করার চেষ্টা করছেন প্রধানমন্ত্রী। কংগ্রেস সভাপতি রাহুল গান্ধি টুইট করেন, “ওয়েল ডান ডিআরডিও। তোমাদের কাজের জন্য খুব গর্বিত। প্রধানমন্ত্রীকে আমার বিশ্ব থিয়েটার দিবসেরও শুভেচ্ছা রইল।” মোদির বিরুদ্ধে রাজনৈতিক ফায়দা তোলার অভিযোগ করেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ও। দলের ইস্তাহার প্রকাশের সময় তিনি বলেন, “বিজ্ঞানীদের কৃতিত্ব চুরি করা হচ্ছে। মোদি কি মহাকাশে যাচ্ছেন? নিজে কিছু করেছেন?” একধাপ এগিয়ে প্রধানমন্ত্রীর বিরুদ্ধে নির্বাচনী আচরণবিধি লঙ্ঘনের অভিযোগ এনে নির্বাচন কমিশনকে চিঠি দেয় সিপিএম।

বুধবার সন্ধ্যায় নির্বাচন কমিশনের তরফে জানানো হয়েছে বিষয়টি তাদের নজরে। কমিশনের ‘অফিসারদের কমিটি’কে বিষয়টি খতিয়ে দেখতে বলা হয়েছে। কমিশনের পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে, প্রধানমন্ত্রীর এই ভাষণের মাধ্যমে নির্বাচনী আচরণ বিধি লঙ্ঘন করেছেন কিনা, অফিসারদের ওই কমিটি সেটাই খতিয়ে দেখবে। এই কমিটিকে অবিলম্বে পরবর্তী রিপোর্ট জমা দিতে বলা হয়েছে। এই রিপোর্টের পরিপ্রেক্ষিতে পরবর্তী পদক্ষেপ করবে কমিশন।

Spread the love

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।