আজকের সারাদিন জেলা দক্ষিণবঙ্গ প্রথম পাতা

গরমের কারনে রক্তের অভাব মেটাতে রক্তদান শিবির অনুষ্ঠিত হয় মাতঙ্গিনী গেস্ট হাউস মেচেদায়।

কোলাঘাটঃ রক্তদান  মহৎ দান আর এই বার্তাকে  মাথায় রেখে মঙ্গলবার পূর্ব মেদিনীপুর জেলার কোলাঘাট থানার অন্তর্গত মেচেদাতে বন্ধুদের উদ্যোগে রক্তদান শিবিরের আয়োজন করা হয়। রক্তদান শিবির অনুষ্ঠিত হয়  মাতঙ্গিনী গেস্ট হাউস মেচেদায়। মূলত  লকডাউন  ও অতিমাত্রায় গরমের কারনে  রক্তের অভাব দেখা দিয়েছে। আর সেই অভাব  মেটানোর লক্ষ্যে বিভিন্ন সংগঠন থেকে শুরু করে সমাজসেবি সংগঠনের উদ্যোগে রক্তদান শিবির করা হচ্ছে।, কিন্তু বর্তমানে নোবেল করোনা ভাইরাসের ফলে গোটা রাজ্যে লকডাউন চলতে থাকার  কারণে সমস্ত ক্লাব ও সরকারি ও সামাজিক অনুষ্ঠান বন্ধ হয়ে যাওয়ার ফলে বন্ধ হয়ে গিয়েছে এই সব সংগঠনের রক্তদান শিবির অনুষ্ঠান, ফলে উদ্যোগ নিয়েছে এবার ব্লক প্রশাসন থেকে শুরু করে পুলিশ প্রশাসন, সেই লক্ষ্যে  বন্ধুরাও রক্তদান শিবিরে সামিল হয়েছে, এদিন এই রক্তদান শিবিরে ৩০ জন রক্তদাতা রক্ত দান করেন যার মধ্যে অধিকাংশ মহিলা। এদিন শিবিরে উপস্থিত ছিলেন পূর্ব মেদিনীপুর জেলার জেলাপারিষদ এর খাদ্য কর্মাধ্যক্ষ সিরাজ খান,শান্তিপুর এক নম্বর গ্রাম পঞ্চায়েতের প্রধান সেলিম আলী, এছাড়াও কোলাঘাট থানার ওসি রাজকুমার দেবনাথ ও পুলিশ আধিকারিকগণ ও করোনা সচেতনতা জেলা ও রাজ্যের বিভিন্ন প্রান্তে নিজের গাড়িতে নিজের খরচায় করোনা স্টিকার ও মুখ্যমন্ত্রীর ছবি ও মাইক লাগিয়ে সমাজ সচেতনতা বার্তা দিয়ে বেড়াচ্ছেন হলদিয়ার মৎস ব্যাবসায়ী সেক সফিউদ্দিনকে বন্ধুদের উদ্যোগে সংবর্ধনা দেওয়া হয়। তবে এই রক্তদান শিবিরের বর্তমান সরকারি ও স্বাস্থ্য দপ্তরের নির্দেশ অনুসারে দূরত্ব বজায় রেখে রক্তদাতা গণ রক্তদান করেন। পাশকুড়া সুপার স্পেশালিটি হাসপাতাল এর ব্লাড ব্যাংক এর কর্তৃপক্ষ রক্ত সংগ্রহ করেন। এই লক ডাউন এর দিনেও অনেকেই  রক্ত দিতে আসেন। মূলতঃ চার বন্ধু মিলে  ২১ দিন ধরে মেছেদা শান্তিপুর কোলাঘাট বুড়ারী ভোগপুর রামতারকহাট সহ পার্শ্ববর্তী এলাকায় দুস্থ অসহায় ভবঘুরে মেছেদা সেন্ট্রাল বাসস্ট্যান্ডে আটকে থাকা যাত্রী দের দু বেলা রান্না করা খাওয়ার পরিবেশন করে চলেছে। যতদিন লক ডাউন চলবে এই বন্ধুরা রান্না করা খাওয়ার দুবেলা দিয়ে আসবেন বলে জানিয়েছেন বন্ধুরা।
Spread the love