উত্তরবঙ্গ করোনা প্রথম পাতা

বালুরঘাটে কোয়ারেন্টাইনে ব্যবহৃত সামগ্রীর বর্জ্য প্রকাশ্যে ফেলার অভিযোগে উত্তেজনা, বাসিন্দাদের আশ্বস্ত করলেন প্রশাসনিক আধিকারিকরা।

করোনার কোয়ারেন্টাইনে ব্যবহৃত সামগ্রীর বর্জ্য প্রকাশ্যে ফেলার অভিযোগ ঘিরে চাঞ্চল্য । বাসিন্দাদের অভিযোগ পেতেই জেলা প্রশাসন তা অন্যত্র ফেলার আশ্বাস দিলেও পরক্ষণে পুলিশ কর্মীরা গিয়ে এলাকার মহিলাদের অশ্লীল ভাষায় গালিগালাজ করছে বলে অভিযোগ । শুধু তাই নয়, রাতের বেলা থাকতে পারবেন না বলে হুমকিও দিয়েছেন পুলিশ কর্মীরা অভিযোগ এলাকার বাসিন্দাদের । দক্ষিণ দিনাজপুর জেলার বালুরঘাটের ডাঙ্গাপঞ্চায়েতের তিননাথপাড়া এলাকার ঘটনায় শোরগোল পড়েছে ।
উল্লেখ্য করোনা মোকাবিলায় জেলা জুড়েই খোলা হয়েছিল কোয়ারেন্টাইন সেন্টার । যেগুলিতে বিভিন্ন সময় বেশকিছু মানুষকে পর্যবেক্ষণে রাখা হয়েছে । অভিযোগ ডাঙ্গা পঞ্চায়েত এলাকার কোয়ারেন্টাইন সেন্টারে ব্যবহৃত জিনিসপত্রের বর্জ্য প্রকাশ্যেই এনে ফেলা হচ্ছিল । জনবহুল এলাকার কাছে কিভাবে এমন কাজ হচ্ছে তা নিয়ে প্রশ্ন করতেই বাসিন্দাদের আশ্বস্ত করা হয় সেগুলি অন্যত্র সরিয়ে নিয়ে যাওয়া হবে । প্রশাসনিক আধিকারিকদের আশ্বাসে বাসিন্দারা স্বস্তি পেলেও পরক্ষণে পুলিশ এসে মহিলাদের অশ্লীল ভাষায় আক্রমণ করেন । শুধু তাই নয়, রাতের বেলা এলাকায় থাকতে পারবেন না বলেও হুমকি দিয়েছে পুলিশ বলে অভিযোগ । আর এতেই ক্ষোভে ফুঁসছেন বাসিন্দারা ।
এলাকার বাসিন্দা মঞ্জু রানী শীল, ভূষণ মন্ডলরা জানিয়েছেন, এলাকায় কোয়ারেন্টাইন সেন্টারের বর্জ্য ফেলার প্রতিবাদ করলে প্রশাসনিক আধিকারিক তা অন্যত্র সরিয়ে দেওয়ার আশ্বাস দিয়েছিলেন । কিন্তু পুলিশ কর্মীরা এসে মহিলাদের অশ্লীল ভাষায় আক্রমণ সহ হুমকি প্রদর্শন করেছেন । যা নিয়ে ভীতসন্ত্রস্ত এলাকার সকলেই । পরিবেশ যাতে সুস্থ থাকে সেই দাবীই জানিয়েছেন সকলে ।
যদিও ডিএসপি সদর ধীমান মিত্র জানিয়েছেন, সিএমওএইচ গিয়ে বাসিন্দাদের আশ্বস্ত করেছেন । তবে পুলিশের বিরুদ্ধে কোন অভিযোগ তিনি জানেন না ।

Spread the love