জেলা প্রথম পাতা রাজ্যের খবর

শিশু পাচার কাণ্ডে বিজেপি নেত্রীকে জামিন দিল সুপ্রিম কোর্ট

নিজস্ব প্রতিনিধি : শিশু পাচার কাণ্ডে গ্রেফতার হওয়া বিজেপি নেত্রী জুহি চৌধুরীকে জামিন দেওয়ার নির্দেশ দিল দেশের সর্বোচ্চ আদালত। সোমবার সুপ্রিম কোর্টের বিচারপতিরা এও জানিয়ে দেন, নিম্ন আদালতে দরকার মতো জুহিকে হাজিরা দিতে হবে। আর তা ছাড়া নিম্ন আদালত জামিনের উপর যদি কোনও শর্ত দেয় তাহলে তাও মানতে হবে তাঁকে।
প্রায় জুহি দু’ বছর ধরে জেলে বন্দি আছে। তাঁর আইনজীবীরা আদালতে সওয়াল করেন, শিশু পাচার মামলায় জুহি যে মুখ্য অভিযুক্ত নন তা চার্জশিটেই বলা হয়েছে। রাজ্য সরকারের আইনজীবীরা অবশ্য বলেন, যেহেতু জুহি চৌধুরীর কয়েকজন আত্মীয়স্বজন এই মামলার সাক্ষী, তাই তাঁকে জামিন দিলে তিনি সাক্ষীদের প্রভাবিত করতে পারেন।

২০১৭-র ১৯ জানুয়ারি জলপাইগুড়ি হোম থেকে শিশু পাচারের অভিযোগে গ্রেপ্তার করা হয় বিজেপির যুব মোর্চার নেত্রী জুহি চৌধুরীকে। তার সঙ্গে বেসরকারি ওই হোমটির কর্ণধার চন্দনা চক্রবর্তী এবং জেলা শিশু সুরক্ষা আধিকারিক সস্মিতা ঘোষকেও গ্রেপ্তার করে পুলিশ। তদন্তে নাম উঠে আসে বিজেপির রাজ্যসভার সাংসদ রূপা গঙ্গোপাধ্যায় ও সর্বভারতীয় বিজেপি নেতা কৈলাস বিজয়বর্গীয়র। যদিও রাজনৈতিক উদ্দেশে বিজেপির নেতা-নেত্রীদের নাম পুলিশ ওই ঘটনায় যুক্ত করেছে বলে অভিযোগ করেছিলেন দলের রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষ।

আলিপুরদুয়ারের গরিব পরিবারটিকে প্রলুব্ধ করার চেষ্টা চলছিল গত এক বছর ধরেই। কখনও চাকরির টোপ, আবার কখনও মোটা টাকার প্রলোভন দেখিয়ে অপরিচিত মানুষের আনাগোনা চলছিল সাড়ে ছ’ফুট লম্বা উমাদের বাড়িতে। স্বাভাবিকের চেয়ে বেশি উচ্চতার কারণে ছোট ছোট পাঁচ বোনের বিয়ে হলেও ৪৫ বছরেও পাত্র জোটেনি তাঁর। মা-বাবার কাছে ‘বোঝা’ হয়ে থাকা মেয়েটিকে ‘উদ্ধার’ করতে রবিবার তিন আগন্তুক তাঁদের বাড়িতে ঢুকে প্রথমে কেন্দ্রীয় সরকারের চাকরির টোপ, পরে নগদ কুড়ি লক্ষ টাকা দেওয়ার প্রলোভন দেওয়া হয় বলে অভিযোগ।

Spread the love

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।