দেশ প্রথম পাতা লগডাউন

নেপাল থেকে বাসে ৩৬ পরিযায়ীকে ফেরালেন তারকা-সাংসদ দেব ।

করোনা পরিস্থিতিতে হঠাৎই জারি হয়েছিল লকডাউন। তখন থেকেই আটকে ছিলেন ভিনদেশে। এমনই ৩৬ জনকে বাড়ি ফিরতে সাহায্য করলেন তৃণমূলের তারকা সাংসদ দেব। ঘাটালের ৩৬ জন সোনার কারিগর লকডাউনের শুরু থেকেই আটকে পড়েছিলেন নেপালে। বৈধ অনুমতি না থাকায় তাঁরা নেপাল সীমান্ত পেরিয়ে ভারতীয় ভূখণ্ডে আসতে পারেননি। অবশেষে দেব উদ্যোগী হয়ে বুধবারই কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্র দফতরের অনুমতি আদায় করেন। মঙ্গলবার ঘাটাল থেকে বাস যায় নেপাল সীমান্তে। স্বরাষ্ট্র দফতরের অনুমতি বুধবার ভারতীয় সীমান্তে পৌঁছয়। বৃহস্পতিবার দুপুরে বাস ঘাটালে পৌঁছয়। স্বাস্থ্য দফতর জানিয়েছে, নেপাল ফেরত প্রত্যেকের লালারসের নমুনা সংগ্রহ করা হবে।

বৃহস্পতিবার দেব জানান, মঙ্গলবার রাতে প্রথম খবর পেয়ে দার্জিলিংয়ের জেলাশাসকের সঙ্গে যোগাযোগ করা হলে তিনি জানান, সীমান্ত পার করাতে কেন্দ্রের অনুমতি লাগবে। দেব তখন মুখ্যসচিবের সঙ্গে যোগাযোগ করেন। মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কেও বিষয়টি জানান তিনি। তারপর প্রশাসনের তরফেই উদ্যোগী হয়ে কেন্দ্রের অনুমতি জোগাড় করা হয়। পুরো বিষয়টা অসম্ভব দ্রুততার সঙ্গে সম্পন্ন হয়েছে বলে জানান দেব। প্রশাসনের উদ্যোগে ১২ ঘণ্টার মধ্যেই ওঁদের ফিরিয়ে আনা সম্ভব হয়েছে।
দেবের হস্তক্ষেপে বৃহস্পতিবার যে ৩৬ জন ফিরেছেন, তাঁরা দিন দশেক ধরে ফেরার চেষ্টা করছিলেন। এঁদের মধ্যে চার মহিলা-সহ ৩০ জনের বাড়ি ঘাটাল থানার বিভিন্ন গ্রামে। দু’জন আবার অন্তঃসত্ত্বা। দু’জনের বাড়ি আরামবাগে আর চার জন বাঁকুড়ার বাসিন্দা। ঘাটালের মহকুমাশাসক অসীম পাল বলেন, “সাংসদের হস্তক্ষেপে বৃহস্পতিবার ৩৬ জন পরিযায়ী শ্রমিক ঘাটালে ফিরেছেন। ভারত সীমান্তে আসার পরে বুধবার তাঁদের খাবারের ব্যবস্থা করা হয়।” জানান, জম্মু-কাশ্মীরেও কিছু মানুষ আটকে রয়েছেন। নেপালেও পাঁচশোর বেশি মানুষ আটকে রয়েছেন। সাংসদের আশ্বাস, ‘‘ওঁদেরও ফেরানোর চেষ্টা চলছে।’’

Spread the love