প্রথম পাতা বিনোদন

প্রতারণার অভিযোগ সোনাক্ষীর বাড়িতে পুলিসের হানা

নিজস্ব প্রতিনিধি : প্রতারণার দায়ে ‘দাবাং’ অভিনেত্রী সোনাক্ষী সিনহা বাড়িতে গেল উত্তরপ্রদেশ পুলিশ। প্রমোদ শর্মা নামে একজন ব্যক্তি সোনাক্ষীর বিরুদ্ধে উত্তরপ্রদেশ পুলিসের কাছে অভিযোগ দায়ের করেন। তার ওপর ভিত্তি করে গত ১১ জুলাই অভিনেত্রীর মুম্বইয়ের জুহুর বাড়িতে হানা দেয় উত্তর প্রদেশ পুলিসের একটি দল।

বৃহস্পতিবার উত্তরপ্রদেশের মোরাদাবাদ থেকে পুলিশের একটি দল সোনাক্ষীর মুম্বইয়ের বাড়িতে পৌঁছয়। ওই থানাতেই অভিনেত্রীর বিরুদ্ধে প্রতারণার অভিযোগ দায়ের হয়েছে। মোরাদাবাদ পুলিশের সঙ্গে জুহু পুলিশের একটি বিশেষ দলও সোনাক্ষীর বাড়িতে গিয়েছিল। সেখানে অভিনেত্রীর বক্তব্য রেকর্ড করতে গিয়েছিলেন পুলিশের কর্তাব্যক্তিরা। কিন্তু অভিনেত্রী তখন বাড়িতে ছিলেন না। কয়েকঘণ্টা অপেক্ষা করে ফিরে যায় পুলিশ। ফের শুক্রবার সোনাক্ষীর বাড়িতে যাবেন পুলিশের আধিকারিকরা।

ওই ব্যক্তির অভিযোগ ২০১৮ সালে মোরাদাবাদে একটি অনুষ্ঠানে আসার প্রতিশ্রুতি দিয়েও শেষ মুহূর্তে আসেননি সোনাক্ষী। সে জন্য তিনি আগাম ২৪ লক্ষ টাকাও নেন। কিন্তু সেই অনুষ্ঠানে পারফর্ম করেননি সোনাক্ষী। অভিযোগ, শেষ মুহূর্তে বেঁকে বসেন তিনি। ইভেন্ট অর্গানাইজাররা বলেছিলেন, সোনাক্ষী যদি পারফর্ম না করেন, তাহলে তাদের অনেক টাকার ক্ষতি হয়ে যাবে। কিন্তু তাতেও রাজি হননি অভিনেত্রী। অনুষ্ঠানের ঠিক আগের মুহূর্তে অনুষ্ঠানে যাওয়ার পরিকল্পনা বাতিল করে দেন তিনি। এনিয়েই ইভেন্ট ম্যানেজমেন্ট কোম্পানি অভিনেত্রীর বিরুদ্ধে অভিযোগ দায়ের করেন। তারপরই পুলিসের কাছে অভিনেত্রীর নামে অভিযোগ জানান ওই ব্যক্তি।

তবে এই অভিযোগ সম্পূর্ণ অস্বীকার করেছেন সোনাক্ষীর মুখপাত্র। তিনি বলেন, “অভিনেত্রী ৯ বছরের বলিউড কেরিয়ারে সততার সঙ্গে কাজ করেছেন। ওই ব্যক্তির অভিযোগ পুরোপুরি মিথ্যে। এটা সোনাক্ষীর কেরিয়ারে দাগ লাগানোর চেষ্টা ছাড়া আর কিছুই নয়। এমন একজন অভিনেত্রীর বিরুদ্ধে প্রতারণার অভিযোগ ভিত্তিহীন ও মিথ্যে।”

কর্মক্ষেত্রে সোনাক্ষীকে পরবর্তীতে দেখা যাবে খানদানি শফকনামা ও মিশন মঙ্গলে। দাবা থ্রি-তেও সলমান খানের জুটি তিনিই।

Spread the love