কলকাতা প্রথম পাতা

স্বস্তিতে সব্যসাচী, বিধাননগর পুরসভায় অনাস্থা ভোট নয়! বে-আইনি নোটিশ খারিজ করে দিল কলকাতা হাইকোর্ট

নিজস্ব প্রতিনিধি: হাইকোর্টের রায়ে বিধাননগর পুরনিগমে স্থগিত হয়ে গেল অনাস্থা ভোট। কাল অনাস্থা ভোট হচ্ছে না বিধাননগর পুরনিগমে। শুনানির শেষে আজ মেয়র সব্যসাচী দত্তের বিরুদ্ধে আনা অনাস্থা প্রস্তাবের নোটিস খারিজ করে দিয়েছেন বিচারপতি সমাপ্তি চট্টোপাধ্যায়। এরফলে কাল কোনও ভোটাভুটি হচ্ছে না বিধাননগর পুরনিগমে। এদিন বিচারপতি বলেন, যে অনাস্থা প্রস্তাবের নোটিস দেওয়া হয়েছে তা খারিজ করা হোক। আগামী দু’দিনের মধ্যে নিয়ম মেনে ফের অনাস্থা প্রস্তাব আনতে হবে। এবারের নোটিস দিয়েছিলেন পুরনিগমের কমিশনার। আদালত জানিয়েছে এটা বৈধ নয়। নিয়ম মেন নোটিস দিতে হবে পুর চেয়ারপারসনকে।

এই সঙ্গে বড় বদলও আনলেন বিচারপতি সমাপ্তি চট্টোপাধ্যায়। তিনি বলেন, অনাস্থা প্রস্তাব নিয়ে ঘোড়া কেনাবেচা তিনি চান না। তাই নোটিস ইস্যুর পরে এক সপ্তাহ সময় দেওয়ার দরকার নেই। পরের দিনই ভোটাভুটি হতে পারে।সব্যসাচী দত্তের বিরুদ্ধে পুর নিগমের কাউন্সিলররা অনাস্থা আনলে তার বিরুদ্ধে হাইকোর্টের দ্বারস্থ হয়েছেন বিধাননগরের মেয়র তথা রাজারহাট-নিউটাউনের বিধায়ক সব্যসাচী দত্ত। আদালতে তাঁর আবেদনে সব্যসাচী জানান, কাউন্সিলরদের ভয় দেখিয়ে ওই অনাস্থা প্রস্তাবে সই করানো হয়েছে এবং পুর কমিশনারের দেওয়া নোটিস আদৌ বৈধ নয় বলেও দাবি সব্যসাচীর। আর তাঁর সেই দাবিকেই কার্যত মেনে নিল আদালত। এদিন রায় ঘোষণার পরে সব্যসাচী বলেন, “আমি এখনও অর্ডার হাতে পায়নি। তবে বলব আদালতের উপরে আমার সম্পূর্ণ আস্থা ছিল, আছে, থাকবে। আদালতের নির্দেশ এর আগেও আমি যেমন অক্ষরে অক্ষরে পালন করে এসেছি আগামীদিনেও অক্ষরে অক্ষরে পালন করে যাব। আদালত যে নির্দেশ দেবে আমি মাথা পেতে নেব।”আদালতের এই নির্দেশে বেশ কিছুটা ব্যাকফুটে তৃণমূল। কারণ, যে নোটিসকে কেন্দ্র করে কাল বিধাননগর পুরনিগমে অনাস্থা ভোটের কথা ছিল, সেই নোটিসটিই বাতিল হয়ে যাওয়ায় তৃণমূল খানিকটা ব্যাকফুটে চলে গেলে বলে মনে করছে ওয়াকিবহল মহল। পাশাপাশি, হাতে আরও বেশ খানিকটা সময় পেয়ে গেলেন সব্যসাচী দত্ত।

 

 

 

Spread the love