দেশ প্রথম পাতা বিনোদন

রাজনৈতিক মতাদর্শ বদলাতেই এই ছবি! মোদীর বায়োপিক নিয়ে কমিশনারকে নালিশ কংগ্রেসের

নিজস্ব প্রতিনিধি : প্রধানমন্ত্রীর বায়োপিক ‘পিএম নরেন্দ্র মোদী’র সিনেমার জল গড়াল নির্বাচন কমিশনের দোরগোড়ায়। ফলে এই ছবির লোকসভা ভোটের আগে মুক্তি নিয়েই সংশয় তৈরি হল বিভিন্ন মহলে।

কমিশনে কাছে কংগ্রেস দাবি করে, শেষ দফা নির্বাচন পর্যন্ত পিছিয়ে দেওয়া হোক ফিল্ম রিলিজ। আজ সোমবার কংগ্রেসের একটি প্রতিনিধি দল কমিশনে গিয়ে অভিযোগ জানায়, লোকসভা ভোটের আগে এটি পুরোপুরি রাজনৈতিক উদ্দেশ্য প্রণোদিত এবং রিলিজ হলে নির্বাচনী বিধিভঙ্গ হবে এবং ভোটারদের প্রভাবিত করবে। আগামী ৫ এপ্রিল ‘পিএম নরেন্দ্র মোদী’ মুক্তি পাওয়ার কথা।

কংগ্রেসের দাবি, ১৯ মে শেষ দফার ভোটের পর এই ছবি রিলিজ করা হোক। না হলে ভোটাররা প্রভাবিত হবেন। এই অভিযোগের ফলে ছবির মুক্তি ঘিরে সংশয় তৈরি হল বলেই মনে করছে ওয়াকিবহাল শিবির। অর্থাৎ এখন নির্ধারিত দিনে ছবির মুক্তি কার্যত কমিশনের কোর্টে।

ছিলেন চা ওয়ালা। সেখান থেকে গুজরাতের মুখ্যমন্ত্রী এবং দেশের ১৪তম প্রধানমন্ত্রী। মাঝখানের সময়ে বহু ঘাত-প্রতিঘাত। কিন্তু এমন সময়ে এই ফিল্মের মুক্তির দিন ধার্য হয়েছে, যখন কার্যকরী হয়ে গিয়েছে নির্বাচনী আচরণ বিধি। গত ১০ মার্চ রবিবার ভোট ঘোষণার পর থেকে।

 

এই ফিল্ম নিয়েই অভিযোগ তুলে নির্বাচন কমিশনের দ্বারস্থ হয়েছে কংগ্রেস। সোমবার বিকেলে দলের তরফে একটি প্রতিনিধি দল এ দিন দিল্লিতে কমিশনের দফতের দিয়ে অভিযোগ জানিয়ে আসে। তাঁদের নেতৃত্বে ছিলেন কপিল সিব্বল। তিনি বলেন, ‘‘এটার উদ্দেশ্য পুরোপুরি রাজনৈতিক। তিন প্রযোজক এবং অভিনেতা ভারতীয় জনতা পার্টির। আর ছবির পরিচালক ভাইব্র্যান্ট গুজরাতের সঙ্গে সরাসরি যুক্ত। তাই এই ফিল্ম রিলিজ করলে নির্বাচনী বিধিভঙ্গ হবে।’’

Spread the love

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।