দেশ প্রথম পাতা

চাকরির শেষ দিনে বাড়ি ফিরলেন কপ্টারে, দাদার ইচ্ছেপূরণ করল ভাই

নিজস্ব প্রতিনিধি : গল্পটা ইচ্ছেপূরণের! জীবনে প্রতিটা লড়াই করার জন্যে ইচ্ছেটা দরকার। ইচ্ছে এমনই একটা শক্তি যার ফলে আমরা জীবনে পথে এগিয়ে যেতে পারি। সেই রকমই একটা ইচ্ছেপূরণের গল্প।

জীবনে ৬০ বছর কেটে গেচ্ছে। তবে তার একটাই ইচ্ছে। চাকরি জীবনের শেষ দিনটা তিনি হেলিকপ্টারে করে বাড়ি ফিরবে। বছর ৪০ আগে ফরিদাবাদের নিমকায় সরকারি সিনিয়ার সেকেন্ডারি স্কুলে চাকরি পেয়েছিলেন কুরে রাম নামে একব্যক্তি। তার বাড়ি সদপুরায়। চাকরি জীবন শেষ হওয়ার কিছু দিন আগে তিনি তার ভাইকে জানান তার ইচ্ছের কথা। কুরে রামের ভাই শিবকুমার বলেছেন, আমার দাদা রিটায়ারের দিনটি সেলিব্রেট করতে চাইছিলেন। তিনি আমাকে বলেছিলেন, তিনি হেলিকপ্টারে চড়ে বাড়ি ফিরবেন। শুধু তাই নয়, তাঁর ইচ্ছে ছিল পরিবারের সবাইকে হেলিকপ্টারে চড়াবেন। আমরা শুধু চেষ্টা করেছি সেটা যেনো পূরণ হয়।

বাড়ি থেকে কুরে রামের স্কুল খানিটা দুরে থাকায়, তিনি প্রথমে পায়ে হেঁটে স্কুলে যেতেন। পরে অবশ্য স্কুলে যাওয়ার জন্যে সাইকেল ও মোটরবাইক ব্যবহার করেন। তবে যেমন কুরে রামের ইচ্ছে পূরণ হওয়ার ছিল। ঠিক তেমনটা হল। কুরে রামের পরিবার তার ইচ্ছে পূরণের জন্য একটি হেলিকপ্টার ভাড়া করে নেয়। তার জন্য যদি ৩ লক্ষ ৩০ হাজার টাকায় খরচ হয় তো হোক। হেলিকপ্টারের জন্যে একরাতের মধ্যে হেলিপ্যাডও তৈরি করা হল। জানা গিয়েছে, কুরে রামের পরিবারের লোকজন মোট ৮বার হেলিকপ্টার চড়ে যাতায়াত করে।

শিবকুমার জানিয়েছিল, আমরা পরিবার ধনী নই। আমাদের চাষের জমিও নেই। কিন্তু তার মানে কি আমাদের ইচ্ছাপূরণ হবে না। দাদার ইচ্ছাপূরণের জন্যে আমাদের পুরো পরিবারই চেষ্টা করেছিলাম।

Spread the love