কলকাতা প্রথম পাতা

লুঠের উদ্দেশ্যেই কি নেতাজিনগর বৃদ্ধ দম্পত্তি খুন? উঠে আসছে নতুন তথ্য

নিজস্ব প্রতিনিধি— সময় যত এগোচ্ছে নেতাজি নগরের পৌঢ় দম্পত্তির খুনের ঘটনার তত্ত্বই জোরালো হয়ে উঠছে। তদন্তকারীরা জানিয়েছেন, ওই দম্পতির চারটি ব্যাঙ্ক অ্যাকাউন্ট ও ২টি লকার রয়েছে। তার মধ্যে স্বপ্না মুখোপাধ্যায়ের একটি অ্যাকাউন্ট রযেছে। যাতে সাত লক্ষ টাকা ব্যালেন্স রয়েছে। অপরদিকে তাঁর স্বামী দিলীপ মুখোপাধ্যায়ের নামে তিনটি ব্যাঙ্ক অ্যাকাউন্ট রয়েছে। তাতে মোট ৩ লক্ষ ৩০ হাজার টাকা রয়েছে। তদন্তকারী অফিসাররা আরও জানতে পেরেছে সম্প্রতি ওই দম্পতি অ্যাকাউন্ট থেকে ৫০ হাজার টাকা তুলেছিলেন। তদন্তকারীরা মনে করছেন, আততায়ীরা সেই খবর জেনে গিয়েছিল আর সেই টাকা হাতিয়ে নিতেই খুনের পরিকল্পনা। একই সঙ্গে আরও একটি গুরুত্বপূর্ণ তথ্য উঠে আসছে। ওই বাড়িতে তিনটি আলমারি ছিল। দুটি আলমারি ভাঙতে পারলেও খুনিরা একটি আলমারি ভাঙতে পারেনি। অফিসারদের অনুমান, ওই দম্পতি কোথায় চাবি রাখত সেটা জানত আততায়ীরা। কিন্তু দুটি আলমারির চাবি পেলেও তৃতীয় আমলারির চাবি খুঁজে না পেয়ে গোটা ঘর লন্ডভণ্ড করে আততায়ীরা। ওই আলমারিতেই দম্পতির ৩০ লক্ষ টাকার ফিক্সড ডিপোজিট ও আড়াই লক্ষ টাকার গয়না রাখা ছিল। পুলিশ ওই আলমারি খুলে তা উদ্ধার করেছে। পুলিশের অনুমান, ওই আলমারিতেই যে গুরুত্বপূর্ণ জিনিস রাখা ছিল, তা আততায়ীরা জানত। প্রায় দেড় ঘণ্টা ধরে সেদিন নেতাজিনগরের ওই বাড়িতে ‘অপারেশন’চালিয়েছিল আততায়ীরা। উল্লেখ্য, পুলিশও প্রায় ২০ ঘণ্টা ধরে ঘরে তল্লাশি চালিয়ে ওই আলমারির চাবি খুঁজে পেয়েছে।

আরও একটি বিষয় ভাবাচ্ছে পুলিশকে। লুঠ করায় যদি আততায়ীদের মুখ্য উদ্দেশ্য তাকে, তাহলে এই বৃদ্ধ দম্পতিকে এত নৃশংসভাবে কেন খুন করল তারা? গোটা বিষয়টাই একপ্রকার ধোঁয়াশার মধ্যে রয়েছে।

Spread the love