কলকাতা প্রথম পাতা

মুকুলকে হারিয়ে হাইকোর্টে জয়ী অভিষেক! বিশ্ববাংলা মামলার সারবত্তা নেই বলে খারিজ করে দিল বিচারপতির বেঞ্চ

নিজস্ব প্রতিনিধি: বিজেপিতে যোগ দেওয়ার পর তৃণমূলের বিরুদ্ধে মুকুল রায়ের আনা প্রথম অভিযোগটাও ভুল প্রমাণিত হল। মুকুল রায়ের করা মামলা খারিজ করে দিল হাইকোর্ট। স্বস্তি পেলেন তৃণমূলের যুব সভাপতি অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়।বিশ্ববাংলা লোগোর মালিকানা কার? পশ্চিমবঙ্গ সরকারের, নাকি সাংসদ তথা যুব তৃণমূল সভাপতি অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়ের? এ নিয়ে গত বছর কলকাতা হাইকোর্টে দায়ের হওয়া দুটি জনস্বার্থ মামলা খারিজ করে দিল প্রধান বিচারপতির ডিভিশন বেঞ্চ। বৃহস্পতিবার এই মামলার শুনানি ছিল। প্রধান বিচারপতি টিবি রাধাকৃষ্ণন এবং বিচারপতি অরিজিৎ বন্দ্যোপাধ্যায়ের ডিভিশন বেঞ্চ স্পষ্ট বলে দিল, ওই মামলার কোনও সারবত্তা নেই।

শমীক দাশগুপ্ত এবং সিদ্ধার্থ দাস নামের দুই ব্যক্তি এই মামলা দায়ের করেছিলেন। অভিষেকের আইনজীবী সঞ্জয় বসুর বক্তব্য, বিজেপি নেতা মুকুল রায়ের প্রভাবেই এই মামলা দায়ের করা হয়েছিল। কিন্তু আদালত তা পত্রপাঠ খারিজ করে দিয়েছে।বছর দুই আগে বিজেপিতে যোগ দেওয়ার পর ধর্মতলায় প্রথম প্রকাশ্য জনসভায় দাঁড়িয়ে মুকুল রায় অভিযোগ করেছিলেন মমতা যে বিশ্ব বাংলা নিয়ে বড়াই করেন, সেটা আসলে সরকারি সম্পত্তি নয়। বেসরকারি সম্পত্তি। এই লোগোর মালিক আসলে অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়। এই নিয়ে আদালতে অভিষেকের বিরুদ্ধে মামলাও করেন মুকুল। যদিও, রাজ্য সরকার সেসময়ই বিজেপি নেতার যাবতীয় অভিযোগ খারিজ করে দিয়েছিল। খোদ মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় বিধানসভায় দাঁড়িয়ে বলেন, ” বিশ্ব বাংলা লোগো আর নাম আমার তৈরি করা। ২০১৩ সালে এই লোগো তৈরি করি। রাজ্য সরকারকে সম্পূর্ণ বিনামূল্যে ব্যবহার করতে দেওয়া হয়েছে। কেউ কেউ এই নিয়ে কুৎসা রটাচ্ছে।”

কার্যত মমতার সেই দাবিতেই সিলমোহর দিল হাই কোর্ট। প্রধান বিচারপতি রাধাকৃষ্ণনের ডিভিশন বেঞ্চ জানিয়ে দিল মুকুলবাবুর অভিযোগের কোনও সারবত্তা নেই। বিশ্ব বাংলা বিতর্ক নিয়ে মোট দু’টি মামলা চলছিল হাই কোর্টে। দুটি মামলার শুনানির শেষে সব অভিযোগই খারিজ হয়ে গিয়েছে। ফলে, আদালতে মুখ পুড়ল মুকুল রায়ের। অন্যদিকে, জয় হল অভিষেকেরই।

 

 

Spread the love