দেশ প্রথম পাতা

কর্নাটকে আজও আস্থা ভোট নিয়ে সংশয়! বধুবার পর্যন্ত পিছিয়ে গেল মামলার শুনানি:জানিয়ে দিল সুপ্রিম কোর্ট

নিজস্ব প্রতিনিধি : স্পিকারের ঘোষণা মতো মঙ্গলবার সন্ধে ৬ মধ্যে আস্থা ভোট করতে হবে। তবে আজ সুপ্রিম কোর্টের রায়ের পর কর্নাটকের আস্থা ভোট নিয়ে ফের সংশয় তৈরি হয়েছে। কর্নাটকের বিদ্রোহী বিধায়কদের দায়ের করা মামলার শুনানি পিছিয়ে বুধবার নির্ধারিত করল দেশের শীর্ষ আদালত। ফলে সোমবার যে যুক্তিতে আস্থা ভোটের প্রস্তুতি হয়েও পিছিয়ে গিয়েছিল, আজও তেমনই হতে পারে বলেই মনে করছেন বাজনেতিক মহলের একাংশ।

দু’সপ্তাহ আগে কংগ্রেসের ১৩ জন ও জেডিএসের তিন জন বিধায়ক ইস্তফা দেওয়ার ফলে কর্ণাটকে রাজনৈতিক সংকট শুরু হয়। গত রবিবার দুই নির্দল বিধায়ক সুপ্রিম কোর্টে আবেদন করেন, সোমবার বেলা পাঁচটার মধ্যে যেন আস্থাভোট নেওয়া হয়। কিন্তু সুপ্রিম কোর্ট সোমবার ওই আর্জি শুনতে রাজি হয়নি। তবে মঙ্গলবার সন্ধ্যা ৬টার পর আস্থা ভোট নেওয়া হবে বলে স্পষ্ট জানিয়ে দেন স্পিকার।

তার মধ্যেই আজ মঙ্গলবার সুপ্রিম কোর্টে বিক্ষুব্ধ বিধায়কদের মামলাটি শুনানির জন্য ওঠে। মামলাকারীদের দাবি, কর্নাটকে কুমারস্বামীসরকারের উপর থেকে তাঁরা সমর্থন তুলে নিয়েছেন। কুমারস্বামী সরকার সংখ্যালঘু হয়ে পড়েছে। তাই আস্থা ভোট নেওয়া জরুরি। কিন্তু নানা টালবাহানা করে মুখ্যমন্ত্রী কুমারস্বামী সেই আস্থা ভোট নিচ্ছেন না।

মঙ্গলবারের শুনানিতেও একই কথা বলার পাশাপাশি কর্নাটক প্রজ্ঞানবন্ত জনতা পার্টির (কেপিজেপি) বিধায়ক আর শঙ্কর এবং নির্দল বিধায়ক নাগেশ দাবি করেন, ‘‘১২ জুলাই মুখ্যমন্ত্রী কুমারস্বামী ঘোষণা করেছিলেন, তিনি আস্থা ভোটে যাবেন। কিন্তু এখনও সেই আস্থা ভোট হয়নি।’’

Spread the love