কলকাতা দেশ প্রথম পাতা

পুলিশের গ্রেফতারিতেই লালবাজার অভিযান বাতিল জুনিয়র ডাক্তারদের, দেশজুড়ে ধর্মঘটের ডাক সিনিয়র চিকিৎসকদের  

নিজস্ব প্রতিনিধি: মঙ্গলবার লালবাজারের অভিযান ডাক দিয়েছিল জুনিয়র ডাক্তাররা। এই অবস্থায় আরও দু’জনকে পুলিশ গ্রেফতার করার পরেই লালবাজারে অভিযান কর্মসূচী থেকে সরে দাঁড়ান জুনিয়র চিকিৎসকরা।এর আগে শনিবার ভবানীভবনে পুলিশ ও স্বাস্থ্য শিক্ষা অধিকর্তার সঙ্গে বৈঠকে জুনিয়র ডাক্তাররা প্রশাসনের ভূমিকা নিয়ে ক্ষোভ উগড়ে দেন।তারপরেই জুনিয়র ডাক্তারদের তরফ থেকে ডাক দেওয়া হয় লালবাজার অভিযানের।কিন্তু ২ অভিযুক্তকে পুলিশ গ্রেফতার করার পরেই লালবাজার অভিযান বাতিলের সিদ্ধান্ত নেন জুনিয়র চিকিৎসকরা।তবে অন্যদিকে দেশ জুড়ে ধর্মঘটের ডাক দিয়েছেন চিকিৎসকরা৷ তাঁদের তরফে জানানো হয়েছে,  ধর্মঘটের জন্য কোনওভাবেই জরুরি পরিষেবা ব্যহত হবে না৷ মূলত ইণ্ডিয়ান মেডিক্যাল অ্যাসোসিয়েশনের পক্ষ থেকে এই ধর্মঘটের ডাক দেওয়া হয়৷ জানা গিয়েছে ন্যাশনাল মেডিক্যাল কমিশন বিল পাশ করার প্রতিবাদে তাঁরা দেশজুড়ে ২৪ ঘণ্টার ধর্মঘটের ডাক দিয়েছেন৷ দেশের চিকিৎসা শিক্ষা ব্যবস্থাকে ঢেলে সাজাতেই নতুন করে বিলটি আনা হয়েছে বলে জানিয়েছিলেন কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্যমন্ত্রী হর্ষ বর্ধন। যদিও আইএমএ-এর দাবি, ওই বিল আইনে পরিণত হলে মেডিক্যাল শিক্ষার গোটাটাই নিয়ন্ত্রণ করবে কেন্দ্র। পাশাপাশি বিল অনুযায়ী হাতুরে চিকিৎসকদের মর্যাদা দেওয়ায় দেশজুড়ে তাঁদের রমরমা বাড়বে, ফলে ক্ষুণ্ণ হবে চিকিৎসকদের মর্যাদা। আর তারই প্রতিবাদে এ বার ধর্মঘটের পথে নেমেছে আইএমএ।

এনআরএস  হাসপাতালের জুনিয়র ডাক্তারদের নিগ্রহকাণ্ডের আঁচ ছড়িয়ে পড়েছিল দেশের সর্বত্র। সরকার-ডাক্তারদের নাছোড় মনোভাবেই কার্যত স্তব্ধ হয়ে পড়েছিল রাজ্যের গোটা চিকিৎসা পরিষেবা। পরিস্থিতি গুরুত্ব বুঝে আসরে নামতে হয় খোদ মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। জুনিয়র ডাক্তারদের একটি প্রতিনিধি দলের সাথে নবান্নে বৈঠক সারেন মুখ্যমন্ত্রী। সেখানে তিনি ডাক্তারদের নিরাপত্তার ব্যাপারে একগুচ্ছ পদক্ষেপ নেওয়ার নির্দেশও জানিয়েচেন। এমনকি ডাক্তার নিগ্রহে জড়িত কাউকে যে তিনি রেহাত করবেন না তাও সেদিনের বৈঠকে স্পষ্ট করেছিলেন মুখ্যমন্ত্রী।তবে আগে যারা গ্রেফতার হয়েছিলেন, সেই ৫জন জামিন পেলেও নতুন করে ওই বিষয়ে আরও ২ জনকে গ্রেফতার করেছে কলকাতা পুলিশ।

 

 

Spread the love