কলকাতা প্রথম পাতা

২১শে জুলাই মানে বিশ্ব ডিম-ভাত দিবস! পুলিশও খাবার পাহাড়া দিচ্ছে, তৃণমূলকে কটাক্ষ দিলীপের

নিজস্ব প্রতিনিধি: ‘‘মুখ্যমন্ত্রীর একুশে জুলাইয়ের ভাষণ হতাশায় ভরা৷ জনসভা ভরাতে পারেননি৷ বিজেপিকে দুষছেন৷’’ শাসকদলের শহিদ দিবসের জনসভাকে ঠিক এ ভাবেই সমালোচনায় বিদ্ধ করলেন রাজ্য বিজেপি সভাপতি দিলীপ ঘোষ৷ কটাক্ষের সুরে বললেন, তৃণমূলের ২১ জুলাই আসলে বিশ্ব ‘ডিম্ভাত’ দিবস৷ ওয়ান থার্ড, ওয়ান ফোর্থ লোকও হয়নি৷ তৃণমূলের পাঁজর ভেঙে গিয়েছে৷এদিন রাজ্য বিজেপি দপ্তরে সাংবাদিকদের মুখোমুখি হয়ে রাজ্য বিজেপি সভাপতি জানান, ‘‘এবার একটা নতুন জিনিস হয়েছে৷ অন্য সময় বিরোধীরা বলত শাসকদল সভায় যেতে বাধা দিচ্ছে৷ তবে এবার মুখ্যমন্ত্রীকে বলতে শুনলাম, বিজেপি নাকি তৃণমূলের বাস আটকেছে৷ ফলে বোঝাই যাচ্ছে বিজেপি আর আগের জায়গায় নেই৷ উনি আমাদের বললে এবার আমরা ওনার সভায় কিছু লোক পাঠাতে পারব৷ তবে বিজেপির কেউ এর সঙ্গে যুক্ত নয়৷ তিনি আরো বলেন,  ডিম রান্না হয়েছে। খাওয়ার লোক মেলেনি। পুলিশ রান্না করা ডিম পাহারা দিয়েছে। অনেক ডিম নষ্ট হয়েছে। এক এক জন চারটে করে ডিম খেয়েও শেষ হয়নি। বললে আমরা লোক পাঠাতে পারতাম ডিম খাওয়ার জন্য।বাংলাদেশ থেকে অনেক কিছু আমদানি করছেন মমতা। এখন ‘জয় বাংলা’ স্লোগান আমদানি করেছেন। ‘দিল্লি চলো’ স্লোগান তুলে দিল্লি যেতে গিয়ে রাজ্যেই চাকা পাংচার হয়ে গিয়েছে। বাংলাও নয়, আগে তৃণমূল কংগ্রেসকে বাঁচান মমতা। মমতা অভিযোগ করেছেন তাঁর দলের এক বিধায়ককে ২ কোটি টাকা অফার করা হয়েছে। কিন্তু তৃণমূলে কোনও নেতার অত দর নেই। ওনারও মার্কেট ভ্যালু এত নয়।

Spread the love