জেলা প্রথম পাতা রাজ্যের খবর

সুন্দরবনে ১৫ জুনের মধ্যে নদী বাঁধ মেরামতের কাজ শেষ করার নির্দেশ সেচ মন্ত্রীর।

আমফানে সুন্দরবনে বাঁধ ভেঙেছে বিস্তীর্ন এলাকা জুড়ে। কিন্তু অস্থায়ীভাবে বাঁধ নির্মাণ শুরু হলেও, কাজেও ঢিলেমি চলছে বলে অভিযোগ। এই সমস্যার সমাধান করতে শীঘ্রই সেচ দফতরের আধিকারিকদের নিয়ে বৈঠকে বসবেন সেচ মন্ত্রী। সেচ দফতর সূত্রে খবর, আমফানের প্রভাবে বাঁধ ভেঙেছে ২৮ কিলোমিটার অংশে। ৭৬ কিলোমিটার নদী বাঁধের ক্ষতি হয়েছে। সুন্দরবনের নদী বাঁধের ভাঙন আটকানো সম্ভব হয়নি। ৭১টি স্থানে সেই নদী বাঁধ ভেঙেছে।

সব মিলিয়ে রাজ্যের হিসেবে ক্ষতির পরিমাণ প্রায় ৫০০ কোটি টাকা। ইতিমধ্যেই রাজ্যের সেচ মন্ত্রী শুভেন্দু অধিকারী উত্তর ও দক্ষিণ ২৪ পরগণার বিস্তীর্ণ অংশে গিয়ে বাঁধ পরিদর্শন করে এসেছেন। বেশ কতকগুলি জায়গায় বাঁধ মেরামতের কাজ শুরু হয়ে গেছে। তবে এর সবটাই হচ্ছে অস্থায়ী ভিত্তিতে। কারণ স্থায়ী বাঁধ নির্মাণ করতে গেলে কংক্রিটের রিং বাঁধ নির্মাণ করতে হবে। আর যা অত্যন্ত খরচ সাপেক্ষ। সেইকারণে অস্থায়ীভাবে এই কাজ শুরু করা হবে। প্রসঙ্গত, আমফান ঘূর্ণিঝড়ের প্রভাবে বাঁধ ভেঙেছে একাধিক জায়গায়। ভরা কোটালে জল ঢুকে প্লাবিত হয়েছে একাধিক জনপদ। অবশ্য সেচদপ্তর সুত্রে খবর, সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে আগামী ১৫ জুনের মধ্যে অস্থায়ী ভাবে হলেও জুড়তে হবে নদী বাঁধ।

Spread the love