করোনা দেশ প্রথম পাতা

করোনার চিকিৎসার সুরাহায় দু’ঘণ্টায় ক্যাশলেস বিমা মঞ্জুরির নির্দেশ ।

সারা দেশে করোনাভাইরাস আক্রান্ত রোগীর সংখ্যা সতেরো হাজারের ঘরে। সরকারি নির্দেশে করোনাও চিকিৎসা বিমার আওতায়। তবে প্রক্রিয়াগত কারণে অনেক ক্ষেত্রেই ক্যাশলেস সুবিধাযুক্ত বিমা থাকা সত্ত্বেও রোগীর চিকিৎসা শুরু বা হাসপাতাল থেকে ছুটির সময় বিমা সংস্থা থেকে ছাড়পত্র আসতে অনেক সময় লেগে যায়। করোনা আক্রান্ত রোগীদের চিকিৎসা শুরু করা বা ছুটির ক্ষেত্রে যাতে এ ধরনের কোনও ‘দেরি’ না হয়, সে বিষয়ে বিমা সংস্থাগুলিকে সতর্ক করে দিল নিয়ামক সংস্থা ইনসিওরেন্স রেগুলেটরি অ্যান্ড ডেভেলপমেন্ট অথরিটি অফ ইন্ডিয়া (আইআরডিএআই)।

 

একই ভাবে, রোগীর সেরে ওঠার পর হাসপাতাল থেকে ছাড়া পাওয়ার সময়েও হাসপাতাল থেকে আসা কোনও অনুরোধ বা অথোরাইজেশন প্রয়োজন হলে, তা দু’ঘণ্টার মধ্যেই জানিয়ে দেওয়া বাধ্যতামূলক। একই সঙ্গে বিমা সংস্থাগুলিকে দেওয়া নির্দেশে বলা হয়েছে, টিপিএ সংস্থাগুলিকেও এই নির্দেশিকা মেনেই দ্রুত কাজ করতে হবে। সেই লক্ষ্যে অবিলম্বে তাদের প্রয়োজনীয় নির্দেশ পাঠাতে হবে বিমা সংস্থাগুলিকে। এর আগে মার্চ মাসেও করোনাভাইরাস সংক্রান্ত সমস্ত বিমার আবেদন যুদ্ধকালীন ভিত্তিতে বিচার-বিবেচনা করার আবেদন জানিয়েছিল নিয়ামক সংস্থা আইআরডিএআই।
সাম্প্রতিক নির্দেশিকায় আরও জানানো হয়েছে, দিবারাত্র ২৪ ঘণ্টা এইসব অনুমোদন, প্রি-অথরাইজেশন এবং ক্লেম সেটেলমেন্টের কাজ কীভাবে করা যায়, সে বিষয়ে অভ্যন্তরীণ কর্মপদ্ধতি বদলে ফেলতে হবে বিমা এবং টিপিএ সংস্থাগুলিকে। দিবারাত্র লোক রেখে যাতে পরিষেবা দেওয়া যায় তা নিশ্চিত করতে হবে।

Spread the love