আন্তর্জাতিক করোনা প্রথম পাতা

অপ্রতুল পিপিই কিট, নগ্ন হয়ে প্রতিবাদ চিকিৎসকদের ।

প্রয়োজনের তুলনায় অপ্রতুল পিপিই কিট বা পার্সোনাল প্রোটেকশন ইকুউপমেন্ট। সেই কারণেই জার্মানির চিকিৎসকরা অভিনব পদ্ধতিতে প্রতিবাদ জানালেন। প্রত্যেকেই সোশ্যাল মিডিয়ায় নগ্ন হয়ে ছবি পোস্ট করেছেন এবং জানিয়েছেন প্রত্যেকদিন পিপিইর অভাবে অত্যন্ত ঝুঁকিপূর্ণ অবস্থায় তাদের কোভিড ১৯ রোগীর চিকিৎসা করতে হয়। অবিলম্বে তাদের পিপিই কিট সরবরাহ করা হোক। কিন্তু চাহিদামত কিট না মেলায়, তার প্রতিবাদ জানাতে অভিনব পথ নিলেন একদল জার্মান চিকিৎসক। নগ্ন হয়ে প্রতিবাদ জানালেন তাঁরা। ‘ব্ল্যাঙ্কে বেডেনকেন’ নামের ওই চিকিৎসক গোষ্ঠীর দাবি, নগ্নতার মাধ্যমে নিরাপত্তাহীনতার প্রকাশ করতে চেয়েছেন তাঁরা। অত্যন্ত ঝুঁকির মধ্যে তাঁদের কাজ করতে হচ্ছে বলে অভিযোগ। দলের চিকিৎসক রুবেন বেরনু দাবি করেছেন, “প্রতি মুহূর্তে ভারইরাসের সঙ্গে লড়াই করছি আমরা। অথচ আমাদের নিরাপত্তার কোনও ব্যবস্থাই নেই। নগ্নতার মধ্য দিয়ে আমরা সেই নিরাপত্তাহীনতাকেই তুলে ধরতে চেয়েছি।” আর এক চিকিৎসক জানিয়েছেন, “আমরা করোনাভাইরাস সংক্রমিতদের চিকিৎসার দায়িত্ব নিতে মোটেও ভয় পাচ্ছি না। পিছিয়েও আসতে চাইছি না। কিন্তু এতটা ঝুঁকির মধ্যে কাজ করা কঠিন। এই প্রতিবাদের মধ্য দিয়ে আমরা প্রশাসনকে সতর্ক করতে চাইছি।” জার্মান সংবাদমাধ্যমের দাবি, হাসাপাতালগুলিতে পর্যাপ্ত পিপিই সরবরাহ করা হলেও ব্যাপক হারে তা চুরি হয়ে যাচ্ছে। শুধু পিপিই নয়, অন্যান্য চিকিৎসা সামগ্রীও চুরি যাচ্ছে। কোনও দুষ্কৃতী দল এই ঘটনায় যুক্ত বলে দাবি পুলিশের। অবশ্য চিকিৎসকদের এই অভিনব প্রতিবাদ জার্মান সরকারের নজর কেড়েছে। সরকারের তরফে প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ গ্রহণ করা হবে বলে জানা গিয়েছে।

Spread the love