খেলাধুলা প্রথম পাতা

দু’সপ্তাহে চারটি সোনা হিমার, বানভাসী অসমের জন্য বেতনের অর্ধেক দান করলেন অ্যাথলিটের

নিজস্ব প্রতিনিধি : স্বপ্নের দৌড় জারি রয়েছে অসমের সোনার মেয়ে হিমা দাসের। গত ১৫ দিনের মধ্যে চারটি সোনা। তবে শুধু নিজের পারফরম্যান্স দিয়েই নয়, এবার ট্র্যাক অ্যান্ড ফিল্ডের বাইরেও দেশবাসীর মন জয় করলেন অসমের অ্যাথলিট। বানভাসী অসমের ত্রাণ শিবিরে নিজের মাসিক বেতনের অর্ধেকটা দিয়ে দিলেন হিমা।

বুধবার চেক প্রজাতন্ত্রে তাবোর অ্যাথলেটিক্স মিটে মেয়েদের ২০০ মিটারে সোনা জিতেছেন তিনি। সময় নিয়েছেন ২৩.২৫ সেকেন্ড। যদিও এ দিন তিনি এই ইভেন্টে নিজের সেরা সময়ের ধারেকাছে পৌঁছতে পারেননি। হিমার ব্যক্তিগত সেরা সময় ছিল ২৩.১০ সেকেন্ড।  দ্বিতীয় স্থানেও অবশ্য ছিলেন আরেক ভারতীয়। ২৪.০৬ সেকেন্ডে দৌড় শেষ করে রুপো পান কেরলের স্প্রিন্টার ভিকে ভিসমায়া। অর্থাৎ প্রতিটা দৌড়ের সঙ্গে সময় কমছে হিমার। এটা ভালো ইঙ্গিত এই ভারতীয় স্প্রিন্টারের জন্য।

লাগাতার বৃষ্টিতে ক্রমেই বেহাল হচ্ছে অসম ও বিহারের পরিস্থিতি। মঙ্গলবার পর্যন্ত দুই রাজ্যে অন্তত ৫৫ জনের মৃত্যুর খবর পাওয়া গিয়েছে। শুধু অসমেই ঘরছাড়া লক্ষাধিক মানুষ। নিজের রাজ্যের এমন করুণ অবস্থা দেখে ব্যথিত হিমা। বন্যাত্রাণে নিজের এক মাসের বেতনের অর্ধেক দান করলেন হিমা দাস। বর্তমানে প্রতিযোগিতামূলক মিট ও প্রশিক্ষণের ইউরোপে রয়েছেন স্প্রিন্টার। মঙ্গলবার অসমের মুখ্যমন্ত্রীর ত্রাণ তহবিলে অর্থ দান করেন হিমা। গত দু’সপ্তাহে তিনটি সোনা জিতেছেন অসমের তরুণী।

ইন্ডিয়ান ওয়েল কর্পোরেশনে এইচআর অফিসার হিসেবে কাজ করেন হিমা। ওই সংস্থা থেকে যে বেতন পান, তার অর্ধেক দান করেছেন স্প্রিন্টার। টুইটারে তিনি লিখেছেন,’অসমের বন্যা পরিস্থিতি ক্রমশ অবনতির পথে। ৩৩টির মধ্যে ৩০টি জেলাই বানভাসি। বড় বড় কর্পোরেট সংস্থা ও অন্যান্যদের এগিয়ে আসতে অনুরোধ করছি’।

 

Spread the love