কলকাতা প্রথম পাতা

সারদা মামলায় ফের সিবিআইয়ের নজরে তৃণমূলের হেভিওয়েটরা

নিজস্ব প্রতিনিধি— সারদা কান্ডে ধীরে ধীরে তদন্তের জাল গোটাচ্ছে কেন্দ্রীয় গোয়েন্দা সংস্থা। তাই এবার সারদা মামলার তদন্তের স্বার্থে আজ শুক্রবার থেকে তৃণমূলের দলীয় পদাধিকারীদের ডেকে পাঠাতে পরে সিবিআই। উদ্দেশ্য একটাই, সারদার তরফ থেকে মোটা অঙ্কের টাকা তৃণমূলের কোনও প্রভাবশালীর কাছে এসে ছিল কিনা।

সূত্রের খবর, ইতিমধ্যেই এই মামলার তদন্তের স্বার্থে সুব্রত বক্সির সঙ্গে কথা বলেছে সিবিআই। জিজ্ঞাসাবাদে সাহায্য করেছেন তিনি। এক সময়ের তৃণমূলের সেকেন্ড ইন কমান্ড বতর্মানে বিজেপিতে যোগ দিয়েছেন। সূত্রের খবর, তদন্তের স্বার্থে এ বার সারদা মামলায় জিজ্ঞাসাবাদের জন্য তাঁকেও ডেকে পাঠাতে চলেছে সিবিআই। বিষয়টি নিয়ে মুকুল রায় জানিয়েছেন, এর আগেও তদন্তে তিনি সিবিআইকে সহযোগিতা করেছেন। ডাকলে আবারও যাবেন। এ ছাড়াও কেন্দ্রীয় গোয়েন্দা সংস্থার তরফে নোটিশ পাঠানো হয়েছে দীনেশ ত্রিবেদী, ডেরেক ও’ব্রায়েন এবং তমোনাশ ঘোষকে। এর আগেও তদন্তের স্বার্থে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য ডেরেক ও’ব্রায়েনকে ডেকে পাঠানো হয়েছিল। কিন্তু সংসদ চলছে, সে কথা জানিয়ে হাজিরা দেননি তিনি। সূত্রে খবর, একই কারণে এই বারেও সম্ভবত তাঁর আসা হবে না। অন্যদিকে বিধায়ক তমোনাশ ঘোষ দাবি করেছেন, সিবিআই-এর তরফে কোনও নোটিশ তিনি পাননি।

তবে হঠাৎ করে সারদা মামলায় তৃণমূল পদাধিকারীদের জিজ্ঞাসাবাদ করতে মরিয়া কেন সিবিআই?

জানা যাচ্ছে, সারদা তদন্ত প্রায় শেষ পর্যায়ে এসে গিয়েছে। সম্ভবত পুজোর আগেই চূড়ান্ত চার্জশিট দিতে পারে কেন্দ্রীয় গোয়েন্দা সংস্থা। আর তাই এই তৎপরতা। সারদার টাকা আদপেও প্রভাবশালীদের হাতে পৌঁছেছিল কি না তা জানাই এখন সিবিআই-এর মূল লক্ষ্য। সূত্রের খবর, পুজোর আগেই সারদা মামলার চার্জশিট তৈরি করে দিল্লির সদর দফতরে পাঠাতে পারে সিবিআই। একই সঙ্গে দিওয়ালির আগেই আদালতেও জমা পড়তে পারে চার্জশিট।

Spread the love