করোনা দেশ প্রথম পাতা

কেরলের পাঠানামথিট্টা জেলায় উপসর্গ ছাড়াই এক বৃদ্ধ ও এক কিশোরের শরীরে মিলল করোনা !

সম্প্রতি কেরলের পাঠানামথিট্টা জেলায় এক বৃদ্ধ ও এক কিশোরের দেহে করোনার উপস্থিতি মিলেছে, কিন্তু এদের দুজনের দেহে করোনার কোনও লক্ষ্মণ দেখা দেয়নি। আর এই ঘটনায় চিকিৎসকরা দিশেহারা। কারণ এই দুজনই হাজার হাজার মানুষের দেহে করোনা ছড়িয়ে দিতে পারেন অজান্তেই। কেরলের তিরুবনন্তপুরম থেকে ১০০ কিমি দূরে পাঠানামথিট্টা জেলায় ঘটনাটি ঘটেছে। আধিকারিকরা জানিয়েছেন, আক্রান্ত ৬০ বছরের বৃদ্ধ সম্প্রতি দুবাই থেকে ফিরেছিলেন। আর ১৯ বছরের তরুণ ফিরেছিলেন দিল্লি থেকে।
ডিস্ট্রিক্ট কালেকটর জানিয়েছেন, ‘এটা চিন্তার কারণ। এমনই উপসর্গ ছাড়া করোনার বাহক হয়ে তা ছড়িয়ে পড়তে পারে অনেকের মধ্যে। ১৪ দিন কোয়ারানটিনে কাটানোর পর কোনও উপসর্গ ছিল না তাঁদের মধ্যে। এটাই আরও চিন্তার।’ সুত্রের দাবি, ওই ৬০ বছরের বৃদ্ধ ১৯ মার্চ থেকে ৬ এপ্রিল পর্যন্ত কোয়ারানটিনে ছিলেন। কোনও উপসর্গ না-থাকলেও তিনি যেহেতু করোনা আক্রান্ত দুবাই থেকে ফিরেছিলেন, তাই তাঁর কোভিড১৯ পরীক্ষা করা হয়। রিপোর্ট পজিটিভ আসে। ১৯ মার্চ শারজা থেকে তিরুবনন্তপুরমে ফিরেছিলেন তিনি। আর তরুণ ছাত্রটি ১৫ মার্চ দিল্লি থেকে ট্রেনে উঠেছিলেন। ১৭ মার্চ তিনি এর্নাকুলামে পৌঁছন। তারপর থেকেই তাঁকে কোয়ারানটিনে রাখা হয়েছিল। সেই পর্ব শেষের পর তাঁর পরীক্ষা করে দেখা যায় তাঁরও রিপোর্ট পজিটিভ। আর এতেই কপালে চিন্তার ভাঁজ পড়েছে ডাক্তারদের।

Spread the love