দেশ প্রথম পাতা লগডাউন

লকডাউনের মধ্যেই এক কিশোরীকে গাড়িতে করে তুলে নিয়ে গিয়ে ধর্ষণের অভিযোগ ভোপালে।

ধর্ষণের ঘটনা ঘটল ভোপালে। লকডাউনের মধ্যেই এক কিশোরীকে গাড়িতে করে তুলে নিয়ে গিয়ে ধর্ষণের অভিযোগ ভোপালে। হাসপাতালে যাওয়ার পথে ১৭ বছরের এক কিশোরীকে গাড়িতে তুলে নেওয়া হয় বলে অভিযোগ। তারপর একটি পরিত্যক্ত এলাকায় তাকে নিয়ে গিয়ে ধর্ষণ করা হয় তাঁকে।
১৮ এপ্রিল গোবিন্দপুরার বিএইচইএল টাউনশিপের ঘটনা। লকডাউনের মধ্যে এই নিয়ে দু-দু বার ধর্ষণের ঘটনা ঘটল ভোপালে। তবে আশ্চর্যের বিষয়, গাড়িটি জেপি হাসপাতাল থেকে গোবিন্দপুরা পর্যন্ত প্রায় আট কিলোমিটার রাস্তায় পুলিশের বেশ কয়েকটি চেকপয়েন্টের উপর দিয়েই যায়। কিন্তু কোথাও ধর্ষকদের আটকানো হয়নি।
খবরে প্রকাশ, ১৮ এপ্রিল সন্ধে সাড়ে ৭টা নাগাদ এক বন্ধুর সঙ্গে জেপি হাসপাতালের দিকে যাচ্ছিল ওই কিশোরী। তার অভিযোগ, তখনই দু জন জোর করে তাকে গাড়িতে তুলে নেয়। তাদেরই একজন তিন ঘণ্টা ধরে ধর্ষণ করে তাকে। এই ঘটনা কারওকে বললে কঠিন মূল্য চোকাতে হবে এই হুমকি দিয়ে মেয়েটিকে ময়ূর পার্কের কাছে ফেলে রেখে দুষ্কৃতীরা পালায় বলে অভিযোগ।
এএসআই শশী চৌবে জানিয়েছেন, ২৪ বছরের শফিক খান ও তার বন্ধু আবিদ খানের নাম নিয়েছে কিশোরীটি। পকসো আইনে তাদের বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করা হয়েছে।

Spread the love