কলকাতা জেলা প্রথম পাতা

রাজ্যে ৯ কোটি মানুষ থাকলে, ৮ কোটি পরিবারে সরস্বতী পুজো হয়!দলীয় ইস্তেহার প্রকাশ করে বিজেপিকে নিশানা মমতার

নিজস্ব প্রতিনিধি: ২০১৯ লোকসভা নির্বাচনের জন্য তৃণমূলের ইস্তাহার প্রকাশ করলেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। বাংলা, ইংরেজি, হিন্দির পাশাপাশি কয়েকটি আঞ্চলিক ভাষাতেও এই ইস্তাহার প্রকাশ করা হয়েছে।

তৃণমূল নেত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় বলেন, ইস্তাহারে সব শ্রেণির মানুষকে গুরুত্ব দেওয়া হয়েছে। সব বয়সের নাগরিকদের কথা মাথায় রেখে তৈরি হয়েছে ইস্তাহার। সাম্প্রদায়িকতা নিয়ে বিজেপি সরকারকে তোপ মমতার। বললেন, লক্ষাধিক দুর্গা পুজো হয় রাজ্যে। সবাই মিলে সেই পুজোয় সামিল হয়। তিনি আরও বলেন, ‘রাজ্যে ৯ কোটি মানুষ থাকলে, ৮ কোটি পরিবারে সরস্বতী পুজো হয়।’ তা সত্বেও বিজেপি অভিযোগ করে, ‘মমতা ব্যানার্জী সরস্বতী পুজো করতে দেন না।’

  •   ১০০ দিনের কাজকে ২০০ দিনের করা হবে। দৈনিক মজুরি দ্বিগুণ করা হবে। পরিবারগুলির কর্মসংস্থান সুনিশ্চিত করতে ও তাদের পরিবারকে আর্থিক স্বচ্ছলতা     বাড়াতে উদ্যোগ নেওয়া হবে।
  • কৃষকদের জীবিকা ও আয়ের ব্যবস্থা করা হবে। কৃষকদের দুর্দশা দূর করতে ফসলের ন্যূনতম দাম, কষক পরিবারের কারও মৃত্যু হলে আর্থিক সাহায্যের মতো প্রকল্প রাজ্যে চালু হয়েছে। 
  • ৫ বছর কেন্দ্রের কৃষি বিষয়ক পুরস্কার পেয়েছে রাজ্য
  • বাংলায় প্রায় ৯০ লক্ষ অসংগঠিত শ্রমিকদের সংগঠিত করার কাজ করা হয়েছে
  • অসংগঠিত শ্রমিকরা ৬০ বছর বয়সের পর ভাতা দেওয়া হয়
  • এমন ভাবে জিএসটি চালু করা হয়েছে, যাতে দেশের অর্থনীতি ভেঙে পড়েছে
  • জিএসটি এবং নোটবন্দি দেশের অর্থনীতির মেরুদণ্ড ভেঙে দিয়েছে
  • গরিব মানুষদের ন্যায্য অধিকার দেওয়া আমাদের উদ্দেশ্য 
  • নোট বাতিল কার স্বার্থে, কেন হয়েছিল, তদন্ত চাই
  • অবসরপ্রাপ্ত বিচারপতির নেতৃত্বে তদন্ত হোক
  • ১৫ লাখ টাকা দেননি মোদী, বিদেশ থেকে কালো টাকা ফেরেনি
  • কৃষকদের অর্থনৈতিক সুরক্ষা নিশ্চিত করা হবে
  • আমরা যোজনা কমিশনকে ফিরিয়ে আনব
  • ক্ষমতায় এলে জিএসটি পুনর্বিবেচনা করা হবে
  • মহিলাদের ক্ষমতায়নে বিশেষ গুরুত্ব, মাতৃত্বকালীন ছুটি দেওয়া হয়েছে দু’বছর
  • বিজ্ঞান গবেষণা, সাংস্কৃতিক দিক থেকে দেশকে এগিয়ে নিয়ে যাওয়া হবে
  • সব ধর্ম এখানে সসম্মানে পালিত হয় এই রাজ্যে
  • স্বাস্থ্য সাথী প্রকল্পে সবাইকে অন্তর্ভুক্ত করা হয়েছে। এমন কেউ নেই, যে বাদ পড়েছে। এমনকি, কেবল অপারেটর ও কর্মীদেরও এই প্রকল্পের আওতায় আনা হয়েছে
  • প্যারা টিচারদের মাইনে বাড়ানো হয়েছে
  • আডবাণীকে টিকিট দেয়নি বিজেপি, দলের সবচেয়ে বর্ষীয়ান নেতাকে গুরুত্ব দেওয়া হয়নি, ওঁরা বর্ষীয়ান নেতাদের সম্মান দিতে জানে না
  • দু’জন লোক তাঁদের চুপ করিয়ে রেখেছেন।
Spread the love

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।