দেশ প্রথম পাতা

আজম খানকে মাফ করব না, তাঁকে কীভাবে শায়েস্তা করতে হয় আমার জানা আছে! মন্তব্য বিজেপি সাংসদ রমা দেবীর

নিজস্ব সংবাদদাতা: তিনি শুধু আমাকে নয়, সারা দেশের মহিলাদের অপমান করেছেন। আমার নির্বাচন কেন্দ্রের মানুষ আমাকে ভোট দিয়েছেন। তাঁরা আমার ওপরে আস্থা রাখেন। তাঁর মতো মানুষকে শায়েস্তা করার ক্ষমতা আমার আছে। সমাজবাদী পার্টির সাংসদ আজম খান সম্পর্কে এমনি বলেছেন বিজেপির সাংসদ রমা দেবী। তিনি আরও জানিয়েছেন, এক বার নয়,আজম খান দু’বার স্পিকারের পদকে অসম্মান করেছেন। প্রথম বার, তাঁর উদ্দেশে আপত্তিকর মন্তব্য করে। এবং দ্বিতীয় বার, ওই মন্তব্য করার পর সঙ্গে সঙ্গে ক্ষমা না চেয়ে। তবে শেষ পর্যন্ত ক্ষমা চাইলেও আজম খানকে মাফ করতে নারাজ রমা দেবী।

গত বৃহস্পতিবার লোকসভায় তিন তালাক বিল নিয়ে বিতর্কের সময় স্পিকারে আসনে বসা রমা দেবীকে তিনি বলেছিলেন, “আপনাকে আমার এত ভাল লাগে যে মনে হয়, আপনার চোখে চোখ রেখেই বসে থাকি।”এ দিন একটি সর্বভারতীয় টেলিভিশন চ্যানেলে সাক্ষাৎকারে রমা দেবী বলেন, “আজম খানের মন্তব্যে শুধুমাত্র নারীরই নয়, পুরুষের সম্মানেও আঘাত হেনেছে।”তিনি আরো বলেন, আমি সঙ্গে সঙ্গে মুখের মতো জবাব দিতে পারতাম। কিন্তু স্পিকারের চেয়ারের সম্মানের কথা ভেবে কিছু বলিনি।

আজম খানের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি দাবি করে তিনি বলেন, সমাজবাদী পার্টির এমপি যদি ওইদিনই ক্ষমা চাইতেন, আমি তাহলে তাঁকে ক্ষমা করতে পারতাম। কিন্তু বৃহস্পতিবার ওই কথা বলার পরে তিনি অন্যায় স্বীকার করেননি। যেন কিছুই হয়নি এমন ভাব করে সভা থেকে বেরিয়ে গিয়েছেন। আমি স্পিকার ওম বিড়লাকে বলব, আজম খান কেবল রমা দেবীর অপমান করেননি, তিনি সারা দেশের মহিলাদের অস্বস্তিতে ফেলেছেন।

 

 

Spread the love