গ্যাল্যারি দেশ

চাষের জমিতে আছড়ে পড়ল বিশালাকৃতির উল্কা, তারপর?

নিজস্ব প্রতিনিধি— বিহারের মধুবনে আর পাঁচটা দিনের মতো বুধবার দুপুরেও চাষের জমিতে বর্ষার ধান রোপন করছিলেন একদল কৃষক। হঠাৎই বিকট আওয়াজ হল। কিছু বোঝার আগে তাঁরা লক্ষ্য করল আকাশ থেকে কিছু একটা পড়ল। বস্তুটি নীচে পড়ার সঙ্গে সঙ্গে চারিদিক ধোঁয়ায় ঢেকে গেল। প্রথমে একটু ঘাবড়ে গেলেও পরে দেখেন যেখানে ওই বস্তুটি পড়েছে সেখানে একটি বড়ো গর্ত হয়েছে আর সেখানে রয়েছে একটি পাথর। চার ফুট গভীর ওই গর্ত থেকে পাথরটাকে বের করতে দেখেই চক্ষু চড়কগাছ। এই ধরনের পাথর তাঁরা কখনও দেখেননি। এটা যে সাধারণ কোনো পাথর নয়, সেটা বুঝে গিয়েছেন মধুবনির জেলাশাসক সিরাসত কপিল অশোক। তিনি বলেন, “এই পাথর সাধারণ কোনো পাথর নয়। ১৫ কিলো ওজনের এই পাথরে ম্যাগনেটিক শক্তি রয়েছে। পাথরের একটা দিক অসম্ভব চকচক করছে।”এর পরেই বিজ্ঞানীদের এই পাথরটি দেখানো হয়। বেশির ভাগ বিজ্ঞানীর মত, এটি উল্কা।

উল্লেখ্য, ২০১৬ সালে তামিলনাড়ুতেও এ রকম একটি ঘটনা ঘটেছিল। আকাশ থেকে পাথর পড়ায় এক বাসচালকের মৃত্যুও হয়। সেটাকেও উল্কা পড়া হিসেবেই ধরে নেওয়া হয়েছিল, যদিও তামিলনাড়ুর ঘটনাটিকে উল্কা বর্ষণ বলে মানতে চায়নি নাসা।

Spread the love