প্রথম পাতা বিনোদন

‘নারীর স্তনের ক্ষেত্রে হিন্দু-মুসলিম দেখেন না’! জোম্যাটো গ্রাহককে প্রতিবাদ জানিয়ে আক্রমণ স্বস্তিকার

নিজস্ব প্রতিনিধি : জ্যোমাটোর মুসলমান যুবকের হাত থেকে খাবার নিতে অস্বীকার অমিত শুক্লা নামে এক ব্যক্তির৷ সেই যুবকই ২০১৩ সালে বাংলাদেশের নির্বাসিত লেখিকা তসলিমা নাসরিনের স্তনের প্রতি আকৃষ্ট হয়ে ছিল। ভাইরাল হয়েছে ২০১৩ সালের রিটুইট। এবার ভাইরাল হওয়া ২০১৩ সালের টুইটটির  প্রতিবাদে  সোশ্যাল মিডিয়ায় ওই যুবকের এক হাত নিলেন ঠোঁট কাটা অভিনেত্রী স্বস্তিকা মুখোপাধ্যায়।

মধ্যপ্রদেশের অমিত শুক্লা নামের যুবক জোমাটোতে নিজের খাবার অর্ডার করেছিলেন। যখন অমিতের খাবার কোনো মুসলমান ডেলিভারি বয় নিয়ে আসে তখন অমিত আপত্তি তোলেন। তিনি সঙ্গে সঙ্গে জোমাটো কর্তৃপক্ষের কাছে একজন হিন্দু ডেলিভারি বয় এর অনুরোধ জানান। কিন্তু জোমাটো কর্তৃপক্ষ তার অনুরোধ করে জানিয়ে দেন যে, “খাবারের কোনো ধর্ম হয়না। খাবার নিজেই একটা ধর্ম।” অমিত এই ঘটনা নিজেই টুইটারে টুইট করে ট্রোলের স্বীকার হোন।

বছর খানেক আগে তসলিমা নাসরিন টুইটারে একটি ছবি শেয়ার করেছিলেন। ছবিটি হার্ভার্ড বিশ্ববিদ্যালয়ে তোলা। ছবির নিচে অমিত কমেন্ট করেছিলেন, “তোমার স্তন দু’টি অসাধারণ। আশা করি আমার বক্তব্য তোমার ভাল লাগবে।” এই ছবি ও কমেন্টের স্ক্রিনশট নিজের টুইটারে পোস্ট করেন স্বস্তিকা। টুইটার হ্যান্ডেলে অমিত শুক্লা নামে ওই ব্যক্তির কাছে স্বস্তিকা প্রশ্ন তোলেন, ”মহিলাদের স্তন নিয়ে যখন এধরনের মন্তব্য করেন, সেক্ষেত্রে যখন ধর্মের বিচার করেন না, তাহলে এক্ষেত্রে কেন?”

ডেলিভারি বয় মুসলিম: অর্ডার বাতিলের পর অভিযোগ জানালো অ্যাপে! পাল্টা জবাব দিল জোমাটোও

স্বস্তিকার এমন মন্তব্যের পর নেটিজেনরা তাঁর পাশে দাঁড়িয়েছেন। তাঁদেরও মত, যে অমিত শুক্লা মহিলাদের স্তন নিয়ে এমন কুরুচিকর মন্তব্য করতে পারেন, তিনিই আবার ডেলিভারি বয়কে নিয়ে বাছবিচার করছেন! কেউ কেউ বলেছে, খাবারে হিন্দু মুসলিম ভেদাভেদ অনেকে। মেনে নিচ্ছেন না। তারা স্বস্তিকার এই প্রতিবাদের প্রশংসা করেছেন। অমিত শুক্লা নামে ওই ব্যক্তির মন্তব্যের বিরুদ্ধে সরবও হয়েছেন দেশের বহু শুভবুদ্ধি সম্পন্ন মানুষরা।

 

 

Spread the love