কলকাতা প্রথম পাতা

বিধাননগরের চেয়ার পার্সেনের জবাব চায় হাইকোর্ট, অনাস্থা ঠেকাতে সব্যসাচীর মামলার শুনানি ফের কাল  

নিজস্ব প্রতিনিধি: অনাস্থা নোটিসের বিরুদ্ধে বিধাননগরের মেয়র সব্যসাচী দত্তর দায়ের করা মামলার শুনানি ফের হবে মঙ্গলবার। কলকাতা হাইকোর্টের বিচারপতি সমাপ্তি চট্টোপাধ্যায় সোমবারের শুনানিতে জানিয়েছেন, এই মামলায় যুক্ত করতে হবে কর্পোরেশনের চেয়ারপার্সন কৃষ্ণা চক্রবর্তীকে। তারপর মঙ্গলবার আবার হবে শুনানি। বিধাননগর কর্পোরেশনের কমিশনার গত ৯ জুলাই আস্থা ভোটের বিজ্ঞপ্তি জারি করেন। ঠিক করেন, ১৮ জুলাই হবে বোর্ড মিটিং। সেখানেই ভোটাভুটি হবে। তারপরই কলকাতা হাইকোর্টে দীর্ঘ পিটিশন দাখিল করেন মেয়র সব্যসাচী দত্ত।সব্যসাচী দত্তের পক্ষের আইনজীবী বিকাশ রঞ্জন ভট্টাচার্য এদিন আদালতে বলেন তাঁর মক্কেলের বিরুদ্ধে যে অনাস্থা প্রস্তাব আনা হয়েছে, তার কপি তাঁরা যেমন পাননি, পাশাপাশি, এই অনাস্থার নোটিশ দাখিল করেন পুর কমিশনার, যা তার এক্তিয়ার বহির্ভূত৷ বিকাশ বাবু এদিন আদালতকে জানান, এই নোটিশ জারি করার একমাত্র সিদ্ধান্ত চেয়ারপার্সনের, যা করা হয়নি বলে অভিযোগ৷একটি পিটিশনে বিধাননগরের মেয়র আরও বলেছেন, রাজারহাট গোপালপুর পুরসভা এবং মহিষবাথান পঞ্চায়েত যখন যুক্ত হয় তারপর থেকে (২০১৭) ওই এলাকার বেআইনি নির্মাণ-সহ একাধিক বিষয়ে তিনি মুখ্যমন্ত্রী ও পুর দফতরকে চিঠি লিখেছিলেন। কিন্তু কোনও সদুত্তর আসেনি। তাই কি এই পদক্ষেপ?

সব্যসাচীর বক্তব্য, যে চিঠি কাউন্সিলররা জমা দিয়েছেন বলে দাবি করা হচ্ছে, নিয়মানুযায়ী তার একটি কপি তাঁকেও দেওয়ার কথা। কিন্তু কমিশনার তাঁকে দেননি। তিনি জানেন না কোন কোন কাউন্সিলররা তাতে সই করেছেন। আদালতের কাছে তাঁর প্রশ্ন, কোন কাউন্সিলররা তাঁর বিরুদ্ধে সই করলেন তা জানার অধিকার কি তাঁর নেই?

 

Spread the love