অফবীট জেলা প্রথম পাতা

একসঙ্গে জলে ডুবে মৃত্যু পাঁচ শিশুর।

একসঙ্গে জলে ডুবে মৃত্যু হল পাঁচ হতভাগ্য শিশুর। মৃত্যুও আলাদা করতে পারলো না পাঁচ বন্ধুকে। শেষ মুহূর্ত পর্যন্ত হাত ধরাধরি করে একে অপরকে জড়িয়ে রয়েছে। ঘটনাটি ঘটেছে, মুর্শিদাবাদের রানিতলার দক্ষিণ শহর চামাপাড়া গ্রামে। জলে ডুবে মৃত্যু হয়েছে মিন্টু শেখ, শাকিল শেখ, ইউনুস শেখ, ইব্রাহিম শেখ ও আজমল শেখ -এর। সকলেরই বয়স পাঁচ থেকে নয় এর মধ্যে। জানা গিয়েছে, বিকেলে গ্রামের একটি ইটভাটার পাশে খেলা করছিল শিশুগুলি। সেখানেই বৃষ্টির জল জমা হয়ে একটি ডোবার সৃষ্টি হয়েছে। সেখানেই প্রথমে কোনও এক শিশু পরে যায়। পরে একে একে আরও বাকি চারজন তাদের তোলার চেষ্টা করে ডোবায় নামে। কেউই সাঁতার জানত না। ফলে একে অপরকে টেনে ডাঙায় তুলে আনার আপ্রাণ চেষ্টা করলেও, শেষপর্যন্ত সকলেই জলে তলিয়ে যায়। দিকে বিকেল গড়িয়ে সন্ধ্যে নামার মুখে ওই পাঁচ শিশু বাড়ি ফিরে না আসায় পরিবারের লোকজন সকলেই খোঁজাখুঁজি শুরু করে দেয়। তাদের নজর পড়ে অন্ধকার অবস্থায় ডোবার জলে যেন কিছু ভেসে রয়েছে। তখনই গ্রামবাসী ও পরিবারের অন্য সদস্যরা এক এক করে ডোবার জলে নেমে হতভাগ্য পাঁচ শিশুর মৃতদেহ উদ্ধার করে। এমনকি মৃত্যুর সময় তারা একে অপরের হাত জড়িয়ে ছিল বলে জানান পরিবারের লোকজন। মিন্টু ও শাকিল সম্পর্কে দুই ভাই।মর্মান্তিক মৃত্যুতে গোটা গ্রাম জুড়ে শোকের ছায়া নেমে এসেছে। এই ঘটনায় মুর্শিদাবাদ জেলার পুলিশ সুপার কে শবরী রাজকুমার বলেন,” এ ব্যাপারে অস্বাভাবিক মৃত্যুর একটি মামলা দায়ের করা হয়েছে”। পাশাপাশি দেহগুলি ময়নাতদন্তের জন্য পাঠানো হয়েছে।

Spread the love