গ্যাল্যারি প্রথম পাতা

অবশেষে বন্ধ হওয়ার পথে গরিবের সাধের এসি ট্রেন ‘গরিব রথ’

নিজস্ব প্রতিনিধি— বয়স বেশি পুরোনো ট্রেনগুলি রক্ষণাবেক্ষণে খরচ করে চাইছে না রেলমন্ত্রক। তাই ওইসব ট্রেনগুলি ধীরে ধীরে বন্ধ করার সিদ্ধান্ত নিয়েছে রেল। এবার সেই তালিকায় পড়তে চলেছে গরিব রথ। তাই গরিব রথ বন্ধ করার সিদ্ধান্ত নিল রেল মন্ত্রক। তার বদলে বাড়ানো হবে এক্সপ্রেস ট্রেনের সংখ্যা। সূ্ত্রের খবর, গরিব রথগুলিকে এক্সপ্রেস ট্রেনে রূপান্তরিত করা হবে।

কেন বন্ধ করা হচ্ছে গরিব রথ?

দরিদ্র ও মধ্যবিত্তের কথা মাথায় রেখে ২০০৬ সালে তৎকালীন রেলমন্ত্রী লালুপ্রসাদ যাদবের হাত ধরে যাত্রা শুরু গরিব রথের। দেখতে দেখতে কেটে গেছে প্রায় ১৩টা বছর। দীর্ঘ এই ট্রেনের সুরক্ষা নিয়ে আশঙ্কা প্রকাশ করে রেল। একই সঙ্গে ট্রেনটির রক্ষণাবেক্ষণে প্রচুর টাকার ক্ষতি হচ্ছে বলে দাবি রেলের। তাই, শেষমেষ এই ট্রেন বন্ধ করার সিদ্ধান্ত নিল রেল মন্ত্রক।

সূত্রের খবর, গরিব রথের রুটেই ধিরে ধিরে বাড়ানো হবে এক্সপ্রেস ও মেল ট্রেনের সংখ্যা। এর মধ্যে বেশ কিছু রুটে গরিব রথের স্থান নিয়েছে মেল ও এক্সপ্রেস ট্রেন। কাঠগুদাম-জম্মু ও কাঠগুদাম-কানপুর রুটে গরিব রথের বদলে চলছে এক্সপ্রেস ট্রেন। তবে, এর ফলে টিকিটের দামও বাড়তে পারে বলে আশঙ্কা। যেমন, দিল্লি থেকে বান্দ্রাগামী গরিব রথের টিকিটের মূল্য ১০৫০ টাকা। সেই জায়গায় এক্সপ্রেস ট্রেন চালু হলে টিকিটের দাম এক ধাক্কায় ৫০০ থেকে ৬০০ টাকা বাড়তে পারে।

Spread the love