দেশ প্রথম পাতা ভুমিকম্প

কাশ্মীর ও গুজরাটে ভূমিকম্প! মাত্র ২৪ ঘন্টায় ৬০ বার কেঁপেছে পৃথিবী !

আবারও কাঁপল জম্মু ও কাশ্মীর। দু দিন মৃদু কম্পনের পর এ বার জোরালো ভূমিকম্প। সাতসকালে তাজিকিস্তানে বেশি তীব্রতার ভূমিকম্পের জের প্রবল কেঁপে ওঠে কাশ্মীরের বিস্তীর্ণ অঞ্চল।জাতীয় ভূমিকম্প কেন্দ্র জানিয়েছে, মঙ্গলবার সকাল ৭.০৩-এ তাজিকিস্তানের দুশানবে থেকে ৩৪১ কিমি পূর্ব-দক্ষিণপূর্বে জোরালো কম্পন অনুভূত হয়। রিখটার স্কেলে কম্পনের তীব্রতা ছিল ৬.৮। তারই জেরে প্রবলভাবে কেঁপে ওঠে ভূস্বর্গ। এই নিয়ে টানা তৃতীয়দিন। রবিবার কম্পন অনুভূত হয় জম্মু ও কাশ্মীরে। রাত ৮.৩৫-এ মৃদু কম্পন হয় ভূস্বর্গের বিভিন্ন এলাকায়। রিখটার স্কেলে কম্পনের তীব্রতা ৩ ছিল। জাতীয় ভূমিকম্প কেন্দ্র জানিয়েছিল, ভূমিকম্পের উপকেন্দ্র ছিল কাটরা থেকে ৯০ কিলোমিটার দূরে। কাশ্মীরের পাশাপাশা রবি ও সোমবার কেঁপে ওঠে গুজরাটও। রবিবার রাত ৮.১৩-এ রাজকোট ও কচ্ছ-সহ গুজরাতের বিভিন্ন এলাকায় ভূকম্পন অনুভূত হয়। রিখটার স্কেলে তীব্রতা ছিল ৫.৫। ভূমিকম্পের উপকেন্দ্র ছিল উত্তর-উত্তরপশ্চিমে ১২২ কিলোমিটার দূরে। কম্পনের তীব্রতা এতটাই ছিল যে আমেদাবাদ,সৌরাষ্ট্র-সহ বিভিন্ন এলাকায় আতঙ্কে বহুতল ছেড়ে রাস্তায় নেমে আসেন লোকজন। কম্পনের পর পরিস্থিতি জানতে রাজকোট, কচ্ছ ও পাটানের ডিস্ট্রিক্ট কালেক্টরদের ফোন করেন গুজরাতের মুখ্যমন্ত্রী বিজয় রুপানি। সোমবার বেলা ১২.৫৭-তে ফের ভূমিকম্প হয় গুজরাতে। রিখটার স্কেলে তীব্রতা ছিল ৪.৪। ভূমিকম্পের উপকেন্দ্র ছিল ভূমি থেকে ১৩ কিলোমিটার গভীরে। কয়েক ঘণ্টা না-পেরোতেই ফের ভূমিকম্প হওয়ায় আতঙ্ক ছড়িয়ে পড়ে মানুষের মধ্যে। প্রসঙ্গত, গত চব্বিশ ঘণ্টার মধ্যে ৬০ বারের বেশি ভূমিকম্প অনুভূত হয়েছে পৃথিবীর নানা প্রান্তে। ভূমিকম্প সংক্রান্ত একটি ওয়েবসাইটে সোমবার (১৫ জুন) এমনটাই দাবি করা হয়েছে। রিপোর্ট অনুযায়ী, শুধু ১৪ জুন দুনিয়াজুড়ে কমপক্ষে ৫০টি ভূমিকম্প হয়েছে। রিখটার স্কেলে কম্পনের সর্বোচ্চ তীব্রতা ছিল ৫.৪, সর্বনিম্ন ২.৫। ভারত ছাড়াও কম্পন অনুভূত হয় ইন্দোনেশিয়া, হাওয়াই, পুয়ের্তো রিকো, মায়ানমার, জামাইকা, আলাস্কা, তুরস্ক, জাপান, ইরান ও ফিলিপিন্সে। উল্লিখিত এই দেশগুলির মধ্যে অনেক জায়গাতেই ২৪ ঘণ্টার মধ্যে একাধিক বার ভূমিকম্প হয়েছে।

Spread the love