করোনা দেশ প্রথম পাতা

ওড়নার ফাঁসে আত্মঘাতী করোনা পজিটিভ যুবতী ।

মনে চেপে বসা আতঙ্ক। আার তার জেরে ঘটেই চলেছে একের পর এক প্রাণহানি। হাজার প্রচার এবং সচেতনতা প্রসারের উদ্দেশ্যে নানান পদক্ষেপ নেওয়া সত্ত্বেও করোনা নিয়ে মানুষ সাবধান না হয়ে বেশি আতঙ্কিত হচ্ছেন। চিকিৎসায় করোনা সেরে যায়, এই তথ্যেও অনেকে ভরসা করতে পারছেন না। সাত দিন আগেই মুম্বইয়ের ওরলি নিবাসী ২৯ বছরের এক যুবতীর দেহে কোভিড-১৯ এর সংক্রমণ ধরা পড়ে।
এরপর তিনি মুম্বইয়ের একটি হাসপাতালে কোয়ারানটিনে ছিলেন। মঙ্গলবার রাতে সবাই ঘুমিয়ে পড়লে তিনি বাথরুমে যান। সেখানেই নিজের ওড়না গলায় জড়িয়ে আত্মহত্যা করেন। সকালে অন্য এক মহিলা বাথরুমে গিয়ে তাঁর দেহ দেখতে পেলে হাসপাতালের কর্মীদের খবর দেন।
ওই যুবতীর নাম প্রমীলা আাখাড়ে। প্রাথমিক তদন্তের পর পুলিশের অনুমান ওরলির বাসিন্দা ওই যুবতী আত্মহত্যা করেছেন। তাঁর দেহ ময়নাতদন্তের জন্য নিয়ে যাওয়া হয়েছে। প্রসঙ্গত, ওই হাসপাতালেই তার আগেরদিন এক করোনা আক্রান্তের বাড়ির লোক হাসপাতালের একজন নার্সকে খুন করেন। এরপর থেকেই কুপার হাসপাতালের সব ডাক্তার-নার্স বিক্ষোভ দেখাতে শুরু করেন। উপযুক্ত ব্যবস্থা না নেওয়া হলে কাজ চালানো অসম্ভব বলে দাবি জানান তাঁরা।

Spread the love