কলকাতা প্রথম পাতা

শর্ত মানলে ‘মমতাকে’ সর্মথন করতে রাজি কমরেড গৌতম দেব! বিজেপিকে ঠেকাতে শেষে প্রবল তৃণমূল বিরোধী বাম নেতার গলাতেও সমঝোতার সুর

নিজস্ব প্রতিনিধি: বঙ্গ রাজনীতিতে বরাবরই মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের কট্টর বিরোধী হিসাবে পরিচিত বাম নেতা গৌতম দেব৷ চাঁচাছোলা ভাষায় বরাবরই মুখ্যমন্ত্রী তথা তৃণমূলের সমালোচনা করেন তিনি৷প্রবল জামানায় একাধিকবার তাঁর রোষে পড়তে হয়েছে বর্তমান মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে।কিন্তু পরিবর্তনের সরকারের প্রায় সাত বছর পরে রাজ্যের রাজনীতির হিসাব অনেক পাল্টেছে। সদ্য শেষ হওয়া লোকসভা নির্বাচনে বিজেপি একাই বাংলায় ২২টি আসন নিয়ে তৃণমূলের ঘাঁড়ে নিঃশ্বাস ফেলেছে। এবার ২০২১।

বিধানসভা ভোটে বিজেপিকে রুখতে কার্যত এককাট্টা হচ্ছে রাজ্যের শাসক-বিরোধী সবপক্ষই। এর মাঝে একসময়ের প্রবল তৃণমূল বিরোধী গৌতম দেবও আজ সমঝোতার পথেই হাঁটতে চান।একটি সংবাদমাধ্যমকে সাক্ষাৎকার দিতে গিয়ে বর্ষীয়ান এই সিপিএম নেতা বিজেপি-কে ঠেকানো নিয়ে তৃণমূলের সঙ্গে সমঝোতার প্রসঙ্গে  বলেছেন, রাজনীতি সম্ভাবনার খেলা। এখানে কেউ অস্পৃশ্য নয়।মমতার হাত ধরার ব্যাপারে হ্যাঁ বা না কিছুই বলছি না। তবে মমতাকে এখনও অনেক কিছু করতে হবে। আমাদের শর্ত মানলে তবেই তাঁর সঙ্গে সহযোগিতা সম্ভব। রাজনৈতিক বিশ্লেষকদের মতে, বহু আগেই ভবিষ্যৎবাণীর সুরে গৌতম দেব বলেছিলেন, তৃণমূলকে একদিন সিপিএমের সঙ্গে আসতেই হবে৷ বিধানসভায় মুখ্যমন্ত্রী বাম-কংগ্রেসের সঙ্গে সমঝোতার প্রস্তাব দেওয়া, সেই ভবিষ্যৎবাণীরই বাস্তবায়ন বলে এখন মনে করছেন তিনি৷একটা সময় তাঁর ভোকাল টনিকেই উজ্জীবিত হতেন বাংলার তামাম বামকর্মীরা। সেই সিপিএম নেতা গৌতম দেব তৃণমূলকে ঠেকাতে ১৬-র বিধানসভার অনেকটা আগে থেকে কংগ্রেসের সঙ্গে সমঝোতার লাইনের কথা বলতেন প্রকাশ্যে। এ নিয়ে সিপিএমের একাধিক রাজ্য কমিটির বৈঠক উত্তপ্ত হয়েছে। কিন্তু গৌতম থামেননি। সেই জোট হয়েছিল। এ বার সেই গৌতমই উস্কে দিলেন বিজেপি-কে ঠেকাতে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের হাত ধরার প্রসঙ্গ।

 

 

Spread the love

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।