জেলা প্রথম পাতা রাজ্যের খবর

বিজেপি কর্মীর বাড়িতে বোমা তৈরির সময় বিস্ফোরণ, উদ্ধার তাজা বোমা, আটক ১০

নিজস্ব প্রতিনিধি : লোকসভা নির্বাচনে পর এলাকায় অশান্তি সৃষ্টি করে চলেছে বিজেপি।বোমা তৈরির সময় আচমকা বিস্ফোরণের ঘটনা ঘটল খেজুরির এক বিজেপি নেতার বাড়িতে।সোমবার ভোর নাগাদ ঘটা এই বিস্ফোরণের বিকট শব্দে আতঙ্কেঘুম ভেঙে যায় খেজুরি ২ ব্লকের কটকা দেবীচক গ্রামের বাসিন্দাদের।খবর পেয়ে পুলিশ গিয়ে উদ্ধার করে বেশকিছু বিস্ফোরক।ঘটনার পর থেকেই পলাতক অভিযুক্ত বিজেপিনেতা লালমোহন মাইতি।তবে পুলিশের হাতে ধরা ৭ বহিরাগত সহ মোট ১০ জন।বোমা বিস্ফোরণের ঘটনাকে কেন্দ্র করে চাপানউতোর শুরু হয়েছে বিজেপি ও তৃণমূলের মধ্যে।তৃণমূলের দাবি, এলাকায় সন্ত্রাস কায়েম করতে চাইছে বিজেপি।তাই ভয় দেখাতেই বিজেপি আশ্রিত দুষ্কৃতীরা রাতের অন্ধকের বাড়িতে বসে বোমা তৈরি করছিল। অন্য দিকেবিজেপি-র দাবি, এটা তৃণমূলের সাজানো ঘটনা।এলাকায় শান্তি বজায় রাখতে মোতায়েন করা হয়েছে পুলিশ বাহিনী।দেবীচকের বাসিন্দা লালমোহন মাইতি  খেজুরি ২ মন্ডলবিজেপি-র সক্রিয় নেতা।এদিন ভোর ৫ টা নাগাদ আচমকাই ঘটে যায় এই বিস্ফোরণ।আতঙ্কিত হয়ে পড়েন বাসিন্দারা। বিস্ফোরণের খবর ছড়াতেই এলাকায় উত্তেজনা ছড়ায়। খবরপেয়ে চলে আসে খেজুরি  থানার পুলিশ। তারা জনতাকে শান্ত করার পাশাপাশি কিছু মজুত বিস্ফোরক উদ্ধার করে নিয়ে যায়। লালমোহন মাইতি দোতলা বাড়ির একটি ঘরেরমধ্যেই চলছিল এই বোমা তৈরি কাজ।বিস্ফোরণের জেরে ওই ঘরের দরজা-জানালা উড়ে যায়।জানালার কাচের টুকরো এসে পড়ে ১৫০ মিটার দূরে রাস্তার ওপর।স্থানীয়রাজানিয়েছেন, বিস্ফোরণের জেরে মুহূর্তের জন্য কেঁপে ওঠে দেবীচক গ্রাম সহ আশেপাশের বেশ কয়েকটি গ্রাম।এ নিয়ে রাজনৈতিক চাপানউতোর শুরু হওয়ায় গোলমালেরআশঙ্কা করে এলাকায় আগাম পুলিশ মোতায়েন করা হয়।

Spread the love