জেলা প্রথম পাতা রাজ্যের খবর

তৃণমূল কর্মী খুনে অভিযুক্ত বিজেপি কর্মী ‘খুন’, গোঘাটে দেহ উদ্ধার ঘিরে এলাকায় অশান্তির সৃষ্টি

নিজস্ব প্রতিনিধি : তৃণমূল কর্মী খুনে অভিযুক্ত ছিলেন তিনি। সেই গোঘাটের নকুণ্ডা গ্রাম পঞ্চায়েতের বিজেপি কর্মী কাশীনাথ ঘোষকে পিটিয়ে খুনের অভিযোগ উঠল তৃণমূল আশ্রিত দুষ্কৃতীদের বিরুদ্ধে। যদিও অভিযোগ অস্বীকার করেছে তৃণমূল। শনিবার রাতে ঘটনাটি ঘটেছে বলে জানা গিয়েছে।

রবিবার সকালে গোঘাটের নকুন্ডা এলাকার একটি খালে কাশীনাথ ঘোষের দেহ ভাসতে দেখেন স্থানীয় বাসিন্দারা। তাঁরা খবর দেন পুলিশে। পুলিশ এসে দেহ উদ্ধার করে তা আরামবাগ মহকুমা হাসপাতালে নিয়ে গিয়েছে।

জানা যায়, সক্রিয় বিজেপি কর্মী হিসেবে এলাকায় পরিচিত ওই ব্যক্তি। বেশ কিছুক্ষণ পুলিশকে ঘিরে বিক্ষোভ দেখান স্থানীয় বিজেপি কর্মী-সমর্থকরা। দীর্ঘক্ষণ পর পরিস্থিতি স্বাভাবিক হলে দেহটি উদ্ধার করে ময়নাতদন্তে পাঠায় পুলিশ।

কাশীনাথের পরিবার অভিযোগ করেছে, শনিবার রাতে বাড়ি ফেরেননি তিনি। তাই খোঁজাখুঁজি শুরু করেন তাঁরা। রবিবার সকালে তাঁর দেহ খালের জলে ভাসতে দেখা যায়। তৃণমূলই এই খুনের পিছনে রয়েছে বলে দাবি করেছে পরিবার।

প্রসঙ্গত, গত ২২ জুলাই গোঘাটেই খুন হন এক তৃণমূল কর্মী। অভিযোগ ওঠে, ২১ জুলাইয়ের সভায় যাওয়ার অপরাধেই পিটিয়ে খুন করা হয় ওই তৃণমূল কর্মীকে।  সূ্ত্রের খবর, সেই  খুনের ঘটনায় নাম জড়িয়েছিল বিজেপি কর্মী কাশীনাথ ঘোষের। তবে কি দলের কর্মীকে হত্যার প্রতিশোধ নিতেই এই খুন? এই প্রশ্নই এখন ঘুরপাক খাচ্ছে স্থানীয়দের মনে।

 

 

 

Spread the love