দেশ প্রথম পাতা

অ্যান্টি স্যাটেলাইট মিসাইলের পরীক্ষা সফল! দেশবাসীকে অপেক্ষা করিয়ে প্রধানমন্ত্রী ঘোষণা করলেন মহাকাশে ভারত আজ চতুর্থ শক্তি

নিজস্ব সংবাদদাতা: মহাকাশেও এবার সাফল্য ভারতের। ভারতে তৈরি অ্যান্টি স্যাটেলাইট ধ্বংস করে দিল একটি উপগ্রহকে। মহাকাশে ভারত আজ বিশ্বের অন্যতম শক্তিশালী দেশ।বুধবার জাতির উদ্দেশ্যে ঘোষণা করলেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী।বুধবার তিনি জানান, মহাকাশে অন্যতম শক্তিশালী দেশ হিসাবে আমেরিকা, রাশিয়া এবং চিনের পরে চতুর্থ দেশ হিসাবে আজ আত্মপ্রকাশ করেছে ভারত।

এ দিন মোদী জানান, কিছু ক্ষণ আগেই অ্যান্টি স্যাটেলাইট মিসাইল (এ-স্যাট) দিয়ে ভারত লো-আর্থ অরবিট (এলইও)-এ থাকা একটি কাজে না লাগা কৃত্রিম উপগ্রহকে ধ্বংস করেছে। মাত্র তিন মিনিটের মধ্যেই এই অপারেশন সম্পন্ন হয়েছে। মিশন শক্তি নামের এই অপারেশনের সাফল্যের জন্য ডিআরডিও-র বিজ্ঞানীদের অভিনন্দন জানান তিনি।বুধবার বেলা সাড়ে ১১টা নাগাদ একটি ট্যুইট করেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী। সেই ট্যুইটেই তিনি জানান, গুরুত্বপূর্ণ ঘোষণা করতে চলেছেন। বেলা ১২টার কিছু পরে জাতির উদ্দেশ্যে ভাষণ দিয়েই এই ঘোষণা করেন প্রধানমন্ত্রী।তিনি জানিয়েছেন, ডিআরডিও-র বিজ্ঞানীদের এই অভিযানের নাম দেওয়া হয়েছে মিশন শক্তি। প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী তাই মিশন শক্তির সঙ্গে যে সমস্ত বিজ্ঞানী ও অন্য আধিকারিকরা যুক্ত ছিলেন তাঁদের প্রত্যেককে ধন্যবাদ দিয়েছেন।

তবে এই অভিযানের জন্য কোনও আন্তর্জাতিক নিয়ম ভাঙা হয়নি বলে স্পষ্ট করে দিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী। তাঁর কথায়, ভারতের নিরাপত্তার জন্য এই কাজ খুব জরুরি ছিল।মোদী ভাষণে বলেন, আমি এমন একটা পরিকল্পনা করেছি যাতে দেশ দু’কদম এগিয়ে থাকবে। দেশে যখন নির্বাচনী আচরণবিধি লাগু হয়েছে, তখন মোদীর এই মন্তব্য নিয়ে বিতর্ক শুরু হয়েছে নানা মহলে। অনেকেই বলছেন, ওই মন্তব্যে ভোটের আচরণবিধি লঙ্ঘন করা হয়েছে।

বিরোধী দল হিসাবে তৃণমূল ইতিমধ্যে প্রতিক্রিয়া জানিয়েছে। তৃণমূল নেতা ফিরহাদ হাকিমের বক্তব্য, এতে ভারতের মানুষের কোনও উপকার হবে না। অকেজো উপগ্রহকে এমনিতেই ধ্বংস করে ফেলা হয়। তাছাড়া এতে মোদীর কৃতিত্ব নেই। বিজ্ঞানীদের দীর্ঘদিনের চেষ্টায় এই ক্ষমতা অর্জন করা সম্ভব হয়েছে। মোদী একটি নন ইস্যুকে ইস্যু করে তোলার চেষ্টায় আছেন। ভারতের মানুষকে তিনি কোনও রিলিফ দিতে পারেননি। 

 

 

 

Spread the love

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।