করোনা জেলা প্রথম পাতা

করোনা যুদ্ধে ফ্রন্টলাইনের আরও এক কর্মীর করোনা পজিটিভ রিপোর্ট এল।

করোনা যুদ্ধে ফ্রন্টলাইনের আরও এক কর্মীর করোনা পজিটিভ রিপোর্ট এল। এবার আক্রান্ত হলেন বারাকপুর পুলিশের এক কর্মী।জগদ্দল বিধানসভার অন্তর্গত ভাটপাড়া ১৪/২ রাজপুকুর পথ আঁতপুর এর বাসিন্দা মিহির ধর এএসআই, করোনা আক্রান্ত হয়ে হাসপাতালে ভর্তি হয়েছেন ।তাঁর বাড়ির সকলে নিজের বাড়িতে সেল্ফ কোয়ারেন্টাইনে আছেন। আক্রান্ত অঞ্চল স্যানিটাইজ করার কাজ সম্পন্ন হয়েছে। পুলিশ সূত্রের খবর, কামারহাটি ফাঁড়ির এক এএসআই পদ মর্যাদার আধিকারিক আক্রান্ত হয়। তাকে বারাসতে কোভিড হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। তাঁর সংস্পর্শে আসা ফাঁড়ির তিন কনস্টেবলকে বারাকপুরে কোয়ারেন্টা‌ইনে পাঠানো হয়েছে।

ওই এএসআই ভাটপাড়া পুরসভার জগদ্দলের আতপুর বালুতলার বাসিন্দা। পুরসভা সূত্রে খবর, রিপোর্ট পজিটিভ আসা মাত্রই তাঁর পরিবারের চার সদস্যকে হোম কোয়ারেন্টাইনে থাকতে বলা হয়েছে। সূত্রের খবর, গত বুধবার ডিউটি সেরে জগদ্দলের বাড়িতে তিনি ফিরেছিলেন। তারপর জ্বর উপসর্গ দেখা দেয়। বৃহস্পতিবার তিনি কামারহাটিতে আসেন। লালারস পরীক্ষা করান। শনিবার তাঁর রিপোর্ট পজিটিভ আসে। এরপর তাঁকে বারাসত কোভিড হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। পুলিশ জানিয়েছে, জ্বর আসায় ওই কর্মীর নমুনা পরীক্ষার জন্য পাঠানো হয়। শনিবার রিপোর্ট পজিটিভ আসে। ভাটপাড়া পুরসভার পুরপ্রধান অরুণ বন্দ্যোপাধ্যায় বলেন, ওই কর্মীর বাড়ি ও এলাকা স্যানিটাইজ করা হয়েছে। প্রশাসন এলাকা সিল করেছে।
অন্যদিকে, টিটাগড়ের পুরানী বাজার এলাকার বাসিন্দা মধ্য বয়সি এক মহিলার উপসর্গ দেখা দেওয়া তিনি স্থানীয় চিকিৎসকের কাছে যায়। চিকিৎসক তাকে বলরাম হাসপাতালে নমুনা পরীক্ষা করতে পাঠায়। শনিবার পরীক্ষার রিপোর্ট পজিটিভ আসে। তাকে বারাসাতের কোভিড হাসপাতালে পাঠানো হয়। তার পরিবারের আট সদস্যকে বারাসাতের কোয়ারেন্টাইন সেন্টারে পাঠানো হয়েছে।

Spread the love