জেলা প্রথম পাতা রাজনৈতিক

বর্ধমানের খণ্ডঘোষে দুই বিজেপি নেতার বিরুদ্ধে দুর্নীতির অভিযোগ।

বর্ধমানের খণ্ডঘোষ এলাকায় দুই বিজেপি নেতার বিরুদ্ধে দুর্নীতির অভিযোগ তুললেন দলেরই এক সদস্য । খণ্ডঘোষের সরঙ্গা গ্রামের বাসিন্দা বিজেপি কর্মী হেমন্ত রুইদাসের দাবি, চাকরি দেবার নাম করে তার কাছ থেকে টাকা নিয়েছেন মহাদেব তা ও পিন্টু সাম নামে দুই বিজেপি নেতা। কিন্তু চাকরি তো দূর অস্ত, টাকা ফেরত চাইলে খুনের হুমকি দেওয়া হয় বলে অভিযোগ। পিন্টু সাম খণ্ডঘোষের ৪ নম্বর জেলাপরিষদ মণ্ডলের সাধারণ সম্পাদক। একই মণ্ডলে বিজেপির শক্তিকেন্দ্রের দায়িত্বে রয়েছেন মহাদেব তা। হেমন্তর অভিযোগ, এই দুই বিজেপি নেতা তাঁর স্ত্রী মাম্পিকে আইসিডিএস-এ এবং তাঁকে বন্ধন ব্যাঙ্কে চাকরি করে দেওয়ার প্রতিশ্রুতি দেন। এজন্য হেমন্ত ২ লক্ষ্ টাকা দেন ওই দুই বিজেপি নেতাকে। এরপর চাকরি না হওয়ায় টাকা পেরত চাইলে, ক্রমাগত ফোনে হত্যার হুমকি দেওয়া হয় হেমন্তকে। অভিযোগের ভিত্তিতে খণ্ডঘোষ থানার পুলিশ প্রতারণা ও খুনের হুমকি- সহ একাধিক ধারায় মামলা রুজু করেছে। অবশ্য এবিষয়ে পিন্টু ও মহাদেবের কোনও প্রতিক্রিয়া মেলেনি। খণ্ডঘোষ ব্লক তৃণমূল সভাপতি অপার্থিব ইসলাম বলেন, “উপর তলা থেকে নিচু তলা পর্যন্ত সব বিজেপি নেতারাই চোর ও দুর্নীতিগ্রস্ত। সারা দেশ জুড়ে বিজেপি লুঠ চালাচ্ছে। নিজের দলের সাধারণ কর্মীদের কাছ থেকে টাকা লুঠ করতেও কসুর করছে না তারা। এরথেকে বড় লজ্জার আর কী হতে পারে।” অন্যদিকে খণ্ডঘোষের বিজেপি পর্যবেক্ষক বিজন মণ্ডল দাবি করেছেন, “সব অভিযোগ মিথ্যা ও ভিত্তিহীন। দুই বিজেপি নেতাকে ফাঁসাতে তৃণমূল চক্রান্ত করে এইসব মিথ্যা মামলা রুজু করিয়েছে। রাজনৈতিক ভাবেই তৃণমূলের এইসব চক্রান্তের মোকাবিলা করবে বিজেপি।”

Spread the love