কলকাতা প্রথম পাতা

বিধায়ক-মন্ত্রীদের পর এবার জেলাপরিষদ সদস্যদেরও ভাতা বাড়ানোর সিদ্ধান্ত নিলেন মুখ্যমন্ত্রী

নিজস্ব প্রতিনিধি: ২১শের শহিদ সমাবেশ কাটিয়ে সপ্তাহের প্রথম কাজের দিনেই রাজ্যের সব জেলার জেলাপরিষদের সকল সদস্যদের ডেকে পাঠিয়েছিলেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। সেইমত জেলাপরিষদের সদস্যদের সাথে নবান্নের সভাঘরে বৈঠকও সারেন মুখ্যমন্ত্রী। পঞ্চায়েতের কাজকর্ম এবং আগামী দিনে কীভাবে তাঁরা চলবেন, মুখ্যমন্ত্রী সেই বার্তা তাদের দিয়েছেন বলে জানা গিয়েছে। এর আগে লোকসভা নির্বাচনের ফল ঘোষণার পর তৃণমূলের সব বিধায়ক এবং সাংসদদের সঙ্গে বৈঠক করেন মমতা। গত ১৮ জুন তিনি রাজ্যের সব দলীয় কাউন্সিলারের সঙ্গে বৈঠক করেন। তাঁদের জন্য গাইডলাইনও বেঁধে দেন। এবার পঞ্চায়েতের কর্মসূচি নিয়ে আলোচনা করতে জেলা পরিষদের সদস্যদের সঙ্গে বৈঠকও সেরে ফেলললেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়।তবে এর আগে বিধানসভায় দাঁড়িয়ে রাজ্যের বিধায়কদের ভাতা বাড়িয়ে দিয়েছিলেন মুখ্যমন্ত্রী। রাজনৈতিক বিরোধীতা ভুলে মুখ্যমন্ত্রীর সিদ্ধান্তকে টেবিল বাজিয়ে সর্মথন জানিয়েছিলেন ডান-বাম সব বিধায়করাই। এমনকি আলাদা স্কেলে ভাতা বৃদ্ধি করা হয়েছিল্ মন্ত্রীদের।

মুখ্যমন্ত্রী এ দিন বলেন, “আমরা সবাই পঞ্চায়েতের সদস্যদের দোষ-গুণ দেখি। একবারও ভাবি না এরা কী ভাবে চলেন। অনেকের গাড়ি ভাড়াও থাকে না।” পাশে পঞ্চায়েতমন্ত্রী সুব্রত মুখোপাধ্যায়কে নিয়ে মমতা জানিয়েছেন- জেলাপরিষদের সভাপতিদের ৬হাজার ৬০০ টাকা থেকে ভাতা বেড়ে হল ৯ হাজার টাকা। সহসভাধিপতিদের ভাতা ৫ হাজার টাকা থেকে বেড়ে হচ্ছে ৮ হাজার টাকা। জেলাপরিষদের কর্মাধক্ষ্যরা এতদিন পেতেন মাসিক ৪ হাজার টাকা। এ বার থেকে তাঁরা পাবেন ৭ হাজার টাকা। জেলা পরিষদের সাধারণ সদস্যদের ভাতা ১৫০০ টাকা থেকে বেড়ে হচ্ছে ৫ হাজার টাকা। একই ভাবে বাড়ছে পঞ্চায়েত সমিতির সভাধিপতি, সহ সভাধিপতি, সাধারণ সদস্য, গ্রাম পঞ্চায়েত প্রধান, উপ প্রধান ও সাধারণ সদস্যদের ভাতাও।

 

Spread the love