দেশ প্রথম পাতা লগডাউন

অধীরের উদ্যোগের পরই মুখ্যমন্ত্রী জানালেন কোটায় আটকে থাকা রাজ্যের ছাত্রছাত্রীদের ফেরানো হবে।

রাজস্থানের কোটায় রাজ্যের প্রায় তিন হাজার ছাত্র-ছাত্রী আটকে রয়েছে। কিছুদিন আগে রাজ্যের মুখ্য সচিব রাজীব সিনহা জানিয়েছিলেন, আটকে থাকা ছাত্র-ছাত্রীদের কোটা থেকে এই মুহূর্তে রাজ্যে ফেরানো সম্ভব নয়। কারণ তিনি স্পষ্টই জানিয়ে দেন, ‘ওই ছাত্রছাত্রীদের আনতে অন্তত ৩০০ বাস প্রয়োজন। এতটা রাস্তা সেই বাসগুলি যাবে এবং আসবে সেটা সম্ভব নয়। রাজস্থান থেকে বাংলায় ফিরতে কয়েকটা রাত হল্ট করাতে হবে। সেটাও এই পরিস্থিতিতে অসম্ভব।

 

” কিন্তু এবার রাজ্য তার অবস্থান বদল করল। সম্প্রতি নবান্নের তরফে এসম্পর্কে জানানো হয়েছে, কোটায় আটকে থাকা রাজ্যের ছাত্র-ছাত্রীদের ফিরিয়ে আনার ব্যবস্থা করা হবে। অবশ্য এজন্য কংগ্রেস সাংসদ অধীর রঞ্জন চৌধুরীর হস্তক্ষেপ উল্লেখযোগ্য ভূমিকা নিয়েছে। কারণ রাজ্য সরকার এ ব্যাপারে হাত তুলে দেওয়ার পর, প্রথমে কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্র মন্ত্রক ও পরে রাজস্থানের মুখ্যমন্ত্রী অশোক গেহলটের সঙ্গে এ বিষয়ে কথা বলেন লোকসভায় কংগ্রেস দলনেতা তথা বহরমপুরের পাঁচবারের সাংসদ অধীররঞ্জন চৌধুরী। রাজস্থান সরকার জানায়, তারা নিজেদের খরচে ছাত্রছাত্রীদের বাংলার সীমান্ত পর্যন্ত পৌঁছে দেবে।

তার পর সীমান্ত থেকে বিভিন্ন জেলায় তাদের বাড়িতে যেন পৌঁছে দেওয়ার ব্যবস্থা করে পশ্চিমবঙ্গ সরকার। নবান্ন সে ব্যাপারে পরিষ্কার করে ‘হ্যাঁ’ বললে তবেই ছাত্রছাত্রীদের পাঠানোর কাজ শুরু করতে পারে তারা।প্রাক্তন প্রদেশ কংগ্রেস সভাপতির সেই তৎপরতার পরই সিদ্ধান্ত বদল করল নবান্ন। সোমবার সকালে মুখ্যমন্ত্রী টুইট করে জানিয়ে দিলেন, কোটায় আটকে থাকা বাংলার ছাত্রছাত্রীদের রাজ্যে ফিরিয়ে আনা হবে শিগগির। পাশাপাশি পুরো বিষয়টির ওপর নজর রাখছেন স্বয়ং মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়।

Spread the love