কলকাতা প্রথম পাতা

মেয়রের চেয়ার ছেড়েই সোজা প্রাথমিক শিক্ষকদের অনশন মঞ্চে পৌছে গেলেন সব্যসাচী! অস্বস্তি তৃণমূলের

নিজস্ব প্রতিনিধি: গত কয়েক দিন ধরেই সর্বভারতীয় মাপকাঠিতে ন্যায্য ও প্রাপ্য বেতন কাঠামোর দাবিতে পথে নেমেছেন সারা রাজ্যের প্রাথমিক শিক্ষকেরা। মৌখিক ও লিখিত ভাবে একাধিক বার আবেদন করার পরে কাজ না হওয়ায়, অনশন শুরু করেছেন তাঁরা। তাদের দাবি, বেতনে কোন বৈষম্য ছাড়া দেশের অন্য রাজ্যের মতোই এরাজ্যেও বেতনের হার সঠিক করা। কিন্তু সেই দাবিকে এখনো মেনে নিতে নারাজ রাজ্য সরকার। কিন্তু এবার রাজ্যের  প্রাথমিক শিক্ষকদের সেই অনশনের মঞ্চে পৌঁছে গেলেন বিধাননগরের সদ্যপ্রাক্তন মেয়র সব্যসাচী দত্ত। দীর্ঘ জল্পনার শেষে বৃহস্পতিবারই নিজের পদত্যাগের ঘোষণা করেন তৃণমূল কংগ্রেসের রাজারহাট-নিউটাউন-এর বিধায়ক সব্যসাচী। তার পরেই, শিক্ষকদের অনশনের ষষ্ঠ দিনে, তিনি পৌঁছে যান বিকাশ ভবনের সামনে, আন্দোলনকারী প্রাথমিক শিক্ষকদের পাশে দাঁড়াতে।

অনশন মঞ্চ থেকে তিনি প্রশ্ন তোলেন, মন্ত্রীরা সকলে ঠান্ডা ঘরে, শিক্ষকেরা রাস্তায় কেন! তাঁর অভিযোগ, বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে পানীয় জলের সরবরাহ। ব্যবস্থা নেই শৌচালয়েরও। তাঁর কথায়, “আন্দোলনকারীদের দাবি ন্যায্য না অন্যায্য সেটা পরে বিচার করার বিষয়। প্রাথমিক ন্যূনতম ব্যবস্থাটুকু কেন থাকবে না আন্দোলনকারীদের জন্য! সব্যসাচী আরও বলেন, এই সরকার মানুষের পাশে থাকবে বলেই এসেছিল। থাকতে না পারলে সে জবাব দেবে মানুষই। তাঁর অভিযোগ, “এখানে শাসনের নামে শোষণ হচ্ছে।”প্রসঙ্গত এর আগেও বিদ্যুৎ ভবন অভিযান করে বিদ্যুৎকর্মীদের পাশে দাঁড়িয়ে রাজ্যের বিদ্যুৎমন্ত্রীর দিকে সরাসরি আঙুল তুলেছিলেন তিনি। তারপরেই তাঁর সাথে দলের দুরুত্ব ক্রমশ বাড়তে থাকে।  এ দিন ফের সেই পথেই হাঁটলেন সব্যসাচী। যদিও তিনি এখনও বিধায়ক, কাউন্সিলর থাকলেও মেয়রের চেয়ারে তিনি প্রাক্তন।

 

Spread the love